(দিনাজপুর২৪.কম) সবজি চাষের বিল্পব ঘটানো দিনাজপুর চিরিরবন্দর উপজেলার কয়েক’শ কৃষক রসুন চাষে এখন রঙ্গিন স্বপ্ন দেখছে। উপজেলার ১২টি ইউনিয়নে রসুনের বাম্পার ফলন ও  দামে খুশি রসুন চাষীরা।উপজেলা  কৃষি অফিস সূত্রে জানা গেছে, এ বারে চিরিরবন্দর উপজেলার ১২টি ইউনিয়নে ৩৪৭ হেক্টর জমিতে রসুন চাষ হয়েছে। এ বছর রসুন চাষে কোমর বেধেঁ নেমে পড়ে চাষীরা।  অনেকে জমি বর্গা নিয়ে অধিক লাভের আশায় রসুন চাষ করে। গত বছর যেখানে রসুন প্রতি মনের দাম ছিল ৫’শ থেকে ৬’শ টাকা, সেখানে এ বছর ১৭’শ থেকে ১৯’শ টাকা দ্বিগুন দরে বিক্রি হচ্ছে। ক্রেতারও উপচেপড়া ভীড়। কৃষক আব্দুল জব্বার জানান, এক বিঘা (৫০ শতক) জমিতে রসুন লাগাতে বীজ ১২ হাজার, জমি তৈরী ৩২০০ টাকা, কামলা সাড়ে চার হাজার টাকা, সার ১০ হাজার টাকা, নিড়ানী ২ হাজার টাকা ও স্প্রে ৪ হাজার টাকা, উত্তোলন ৩ হাজার সবমিলে ৪০ হাজার টাকা খরচ উঠে। বর্তমান বাজারে প্রতি মন রসুন বিক্রি হচ্ছে ২৫’শত থেকে ৩ হাজার টাকা এবং এক বিঘা জমির রসুন ১ লক্ষ ২০ হাজার থেকে ১ লক্ষ ৫০ হাজার টাকা বিক্রি হচ্ছে।

উপজেলার রসুন চাষি ইয়াকুব আলী, নজরুল ইসলাম, আফজাল হোসেন জানান, গত বছর রসুনের দাম অধিক থাকায় অনেক আশা নিয়ে এবার ১ একর জমিতে রসুন লাগিয়েছি। এছাড়া রসুন চাষি সামছুল হক, সাপিয়ার, দয়াল, ছাইদুল, বেলাল, রহিম জানান, এ গত বছর রসুন চাষ করে লোকসান গুনতে হয়েছে। এ বছর রসুনের ভাল ফলন এবং দাম দ্বিগুন হওয়ায় রঙ্গিন স্বপ্ন দেখছি। এ ব্যাপারে কৃষি কর্মকর্তা মো: মাহামুদুল হাসান জানান, অধিক লাভের আশায় চাষিরা ব্যাপক হারে রসুন চাষ করেছে। আনুরুপ ফলন ও বাজারে চাহিদা থাকায় রসুন চাষীরা খুশি।