(দিনাজপুর২৪.কম) ১৫ই আগস্ট জাতীয় শোক দিবস পালনের জন্য চাঁদা না দেয়ায় চাঁদপুরের কচুয়া উপজেলার ভুইয়ারা উচ্চ বিদ্যালয়ের দুই শিক্ষককে লাঞ্ছিত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে স্থানীয় যুবলীগের কিছু কর্মীর বিরুদ্ধে। এ ঘটনার প্রতিবাদ করায় শিক্ষার্থীদের পিটিয়েছে যুবলীগের ‘চাঁদাবঞ্চিত’ সেই কর্মীরা। এতে আহত হয়েছে কমপক্ষে ৪০ জন। ২০ জনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে ১৩ জন মেয়ে ও ৭ জন ছেলে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দুজন শিক্ষক জানান, শুক্রবার রাতে যুবলীগের কিছু কর্মী বিদ্যালয়ে গিয়ে ১৫ই আগস্ট জাতীয় শোক দিবস পালনের জন্য প্রধান শিক্ষক দুলাল চন্দ্র সরকারের কাছে ছাত্রীদের উপবৃত্তির তহবিল থেকে ১৫ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। এ জন্য তারা প্রধান শিক্ষককে শনিবার পর্যন্ত সময় বেঁধে দেয়। সেই টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে তারা শনিবার দুপুরে এসে প্রধান শিক্ষককে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে। প্রধান শিক্ষককে বাঁচাতে গিয়ে লাঞ্ছিত হন বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ও হোস্টেল সুপার ফজলুর রহমান।
আজ রোববার সকালে ছাত্র-ছাত্রীরা বিদ্যালয়ে এসে এ ঘটনা জানতে পেরে প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ প্রদর্শন করতে থাকে। এ সময় ১৫-১৬ জন যুবক লাঠিসোটা নিয়ে ছাত্র-ছাত্রীদের ওপর হামলা চালায়। তাদের হামলায় অন্তত ৪০ জন শিক্ষার্থী আহত হয়। চাঁদপুর পুলিশ সুপার সামছুন নাহার জানান, এ ঘটনায় দুলাল চন্দ্র সরকার মামলা দায়ের করেছেন। ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হবে। -ডেস্ক