(দিনাজপুর২৪.কম) সোমবার (২৬মার্চ) নগরীর সল্টগোলা ক্রসিংয়ের মেহের আফজাল উচ্চ বিদ্যালয়ে মো. মহিউদ্দিন মহিদ নামে এক যুবলীগ নেতাকে খুন করেছে দুর্বৃত্তরা। মহিউদ্দিন নগরীর দক্ষিণ-মধ্যম হালিশহর এলাকার আবু ইব্রাহিমের ছেলে। তিনি ৮নং ওয়ার্ড যুবলীগের নেতা ছিলেন।

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে দায়িত্বরত জেলা পুলিশের এএসআই মো. আলাউদ্দিন তালুকদার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গুরুতর আহত এক যুবককে চমেক হাসপাতালে নিয়ে এলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। ওই যুবকের মাথা, বুক, হাত, পা-সহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে জখমের চিহ্ন রয়েছে। ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ মর্গে পাঠানো হচ্ছে।

নিহতের ভাগিনা বলেন, যখন ও মারে ও বাপরে আওয়াজ শুনি তখন দৌড়ে যাই। শুনলাম, আওয়াজে মহিউদ্দিনকে মেরে ফেলছে। সাথে সাথে দৌড়ে গেলাম। দেখলাম, ১৫/২০ জন দা কিরিচ নিয়ে দৌড়াদৌড়ি। ইকবাল, মুরাদ ও বিপ্লব নামে কয়েকজনকে চিনি ওরা মারছে।

নিহতের ভাই বলেন, পূর্বে হাজি ইকবাল ভাইয়ের সাথে একটা বাড়াবাড়ি হয়েছিল। এটার জের ধরে আজ ওনার নেতৃত্বে আমার ভাইকে খুন করা হয়েছে।

নিহতের শাশুড়ি বলেন, যারা আমার জামাইকে মেরেছে- তারা যেন বিদেশে পালিয়ে যেতে না পারে। আমি সঠিক বিচার চাই। ৩৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি এম হাসান মুরাদ বলেন, হাজি ইকবাল ও তার সংঘবদ্ধ দল নৃশংসভাবে হামলা করেছে। যার দৃষ্টান্তমূলক শান্তি চাই। -ডেস্ক