GB

GB(দিনাজপুর২৪.কম)রিও-অলিম্পিকে যাওয়ার আগে গ্রিট বৃটেনের অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন একটি টার্গেট নিয়েছিল। তারা বলেছিল, এবার তারা কমপক্ষে ৪৮টি পদক জিততে চায়। ২০০৮-বেইজিং অলিম্পিকে তারা ৪৭টি পদক জিতেছিল। এবার তারচেয়ে কমপক্ষে একটি পদক বেশি জিততে চায়। ২০১২-লন্ডন অলিম্পিকের হিসাব তারা সামনে। কারণ, সেবার তারা সর্বোচ্চ ৬৫ পদক জিতেছিল। অলিম্পিকের ইতিহাসে সেটাই ছিল তাদের সবচেয়ে সফল আসর। ওই রেকর্ড ভাঙার কথা তারা চিন্তাই করেনি। কিন্তু কী অবাক করা কথা! সেই রেকর্ড ভেঙে তারা রিও’তে নয়া রেকর্ড গড়লো। অপ্রত্যাশিত সাফল্যই পেয়েছে তারা। এবার তারা জিতেছে ৬৭টি পদক। ২৭ সোনা, ২৩ রূপা ও ১৭ ব্রোঞ্জ। তালিকায় চীনকে টপকে তারা দ্বিতীয় স্থানে থেকে শেষ করেছে। ১২১ পদক জিতে ধরাছোঁয়ার বাইরে যুক্তরাষ্ট্র। চীনের পদক ৭০। মোট পদকের হিসেবে গ্রেট বৃটেনের চেয়ে তাদের ৩টি পদক বেশি। কিন্তু চীনের চেয়ে একটি সোনা বেশি জিতে দ্বিতীয় স্থানেগ্রেট বৃটেন। অলিম্পিকে তাদের ১০০ বছরের ইতিহাসে এই প্রথম পদক তালিকায় শীর্ষ দুইয়ে থেকে শেষ করলো তারা। এবার অলিম্পিক চলেছে দুই সপ্তাহব্যাপী। গ্রেট বৃটেন যে পদক জয়ের টার্গেট করে সেই ৪৮ পদক তারা নিশ্চিত করে পঞ্চম দিনেই। এবার তাদের ৩৬৬ জন অ্যাথলেট অলিম্পিকে অংশগ্রহণ করে। এরমধ্যে দলসহ মোট ১২৯জন পদক জিতেছেন। অলিম্পিকে অংশ নেয়া ৩৫ শতাংশ খেলোয়াড় পদক জিতেছে। রিও-অলিম্পিকের ১৫ দিনের মধ্যে গ্রেট বৃটেনের খেলোয়াড়রা মাত্র একদিন কোনো পদক জিততে পারেনি। সেটা ছিল প্রথম ও ১২তম দিন। গ্রেট বৃটেন সবচেয়ে বেশি- ১৫ পদক জিতেছে সাইক্লিংয়ে।

পদক তালিকা (শীর্ষ ১০)
দেশ     সোনা    রূপা ব্রোঞ্জ মোট
যুক্তরাষ্ট্র     ৪৬     ৩৭     ৩৮     ১২১
গ্রেট বৃটেন     ২৭     ২৩     ১৭     ৬৭
চীন     ২৬     ১৮     ২৬     ৭০
রাশিয়া     ১৯     ১৮     ১৯     ৬৫
জার্মানি     ১৭     ১০     ১৫     ৪২
জাপান     ১২     ৮     ২১     ৪১
ফ্রান্স     ১০    ১৮     ১৪     ৪২
দক্ষিণ কোরিয়া    ৯    ৩    ৯    ২১
ইতালি     ৮     ১২     ৮     ২৮
অস্ট্রেলিয়া     ৮     ১১     ১০     ২৯