(দিনাজপুর২৪.কম)একীভূতকরণ প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে লাফার্জ হোলসিম লিমিটেড নামে যাত্রা করেছে বিশ্বের দুই সিমেন্ট কোম্পানি ফরাসি লাফার্জ এসএ ও সুইস হোলসিম লিমিটেড। তবে করপোরেট কাঠামোর কারণে বাংলাদেশে আলাদাভাবেই ব্যবসা করে যাবে তারা। যতদিন পর্যন্ত দেশে দুই কোম্পানি একত্র না হবে তত দিন লাফার্জ সুরমা ও হোলসিম বাংলাদেশের লাভক্ষতির হিসাব আলাদাই থাকবে। বিদেশে গ্রুপ পর্যায়ে একীভূতকরণের পর এ কোম্পানির বদলে লাফার্জ হোলসিম লিমিটেড তাদের এক উদ্যোক্তাগোষ্ঠীতে পরিণত হয়েছে। ডিএসই এ তথ্য জানিয়েছে।

এদিকে গ্রুপ পর্যায়ে লাফার্জ ও হোলসিমের একীভূতকরণের আলোচনা এগিয়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ডিএসইর বিনিয়োগকারীরা দেশে এ দুই কোম্পানির একীভূতকরণ নিয়েও আশাবাদী হচ্ছিলেন। ফলে লাফার্জের শেয়ারের দাম বেড়ে যায়। দেশে একীভূত না হওয়ায় রবিবার শেয়ারটির দরে কিছুটা নেতিবাচক প্রভাব পড়ে। তবে গতকাল সোমবার শেয়ারদর বেড়েছে ২ টাকা ৩০ পয়সা।
জানা গেছে, ১৯৯৭ সালে একটি প্রাইভেট লিমিটেড কোম্পানি হিসেবে যাত্রা করে লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট লিমিটেড। প্রতিষ্ঠানটি ২০০৩ সালে পাবলিক লিমিটেড কোম্পানিতে রূপান্তিত হয়। এখন পর্যন্ত একমাত্র গ্রিনফিল্ড কোম্পানি হিসেবে ওই বছরই এটি পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট লিমিটেডের অনুমোদিত মূলধন ১ হাজার ৪০০ কোটি টাকা, পরিশোধিত মূলধন ১ হাজার ১৬১ কোটি ৩৭ লাখ টাকা। রিজার্ভ ১৬৪ কোটি ১৮ লাখ টাকা। কোম্পানির মোট শেয়ারের ৫৮ দশমিক ৮৭ শতাংশ এর উদ্যোক্তা-পরিচালকদের কাছে, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারী ৫ দশমিক ৭৭ শতাংশ এবং বাকি ৩৫ দশমিক ৩৬ শতাংশ শেয়ার রয়েছে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের হাতে। আর ২০০০ সালে হুন্দাই সিমেন্ট অধিগ্রহণের মাধ্যমে বাংলাদেশে যাত্রা শুরু করে হোলসিম বাংলাদেশ লিমিটেড। পরবর্তীতে স্থানীয় ইউনাইটেড ও সায়হাম সিমেন্ট ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডকে অধিগ্রহণ করে উত্পাদন সক্ষমতা আরো বাড়ায় কোম্পানিটি।(ডেস্ক)