(দিনাজপুর২৪.কম) সম্প্রতি গুগল ডকসে ফিশিং ইমেইল আক্রমণের কারণে যুক্তরাষ্ট্রের মিনেসোটা অঙ্গরাজ্যের ৯০ হাজার ডলারের ক্ষতি হয়েছে বলে দাবি করেছেন ওই অঙ্গরাজ্যের প্রধান তথ্য নিরাপত্তা কর্মকর্তা। তিনি জানান, তাদের প্রায় আড়াই হাজার কর্মীর কাছে এই ফিশিং ইমেইল গেছে।

এ ব্যাপারে তথ্য নিরাপত্তা কর্মকর্তা ক্রিস্টোফার বুস জানান, মিনেসোটার ক্ষতিটা হয়েছে মূলত এই ফিশিং মেইল বন্ধ করা এবং কর্মীদের সচেতন করার পেছনে। তিনি বলেন, সমস্যা সমাধান করতে গিয়ে প্রতি কর্মীর পেছনে প্রায় তিন মিনিট সময় ব্যয় করতে হয়েছে। অন্যান্য অনেক সাধারণ ঘটনার চেয়ে এই সময় অনেক বেশিই। ক্ষতির পরিমাণ আরও বেশি হতে পারত।

তবে মিনেসোটা অঙ্গরাজ্য সরকারের সংস্থাগুলো সাধারণত জিমেইল বা গুগল ডকস ব্যবহার করে না বলেও জানান তিনি।

এ বিষয়ে গুগল জানিয়েছে, ১০ লাখ জিমেইল ব্যবহারকারী এই ফিশিংয়ের শিকার হয়েছে। এই সংখ্যা মোট জিমেইল ব্যবহারকারীর মাত্র ০.১ শতাংশ। পাশাপাশি গুগল দাবি করেছে, ‘স্ক্যাম ছড়ানোর এক ঘণ্টার মধ্যেই ভুয়া পেজ এবং অ্যাপ্লিকেশন সরিয়ে ফেলা হয়েছে। ’

প্রসঙ্গত, ফিশিং স্ক্যাম হলো যেখানে গ্রাহককে ভুল বুঝিয়ে, ক্ষেত্রবিশেষে পরিচয় গোপন করে তার ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নেওয়া হয়। -ডেস্ক

সূত্র: বিবিসি