kerry-dinajpur24(দিনাজপুর২৪.কম) যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি এক দিনের ঢাকা সফরে জঙ্গিবাদ, গণতন্ত্র, উন্নয়ন ও মানবাধিকারের বিষয় নিয়ে বাংলাদেশের নেতাদের সঙ্গে আলোচনা করবেন। সন্ত্রাসী তৎপরতা মোকাবিলার নামে যেন গণতান্ত্রিক মূল্যবোধগুলো কোনোভাবেই বাধাগ্রস্ত না হয়, এ বিষয়েও গুরুত্ব থাকবে জন কেরির।
রোববার প্রথম আলো’তে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এসব কথা বলা হয়েছে। ওয়াশিংটন থেকে প্রতিবেদনটি লিখেছেন হাসান ফেরদৌস। এতে বলা হয়েছে, জন কেরি আগামীকাল সোমবার সংক্ষিপ্ত সফরে জেনেভা থেকে ঢাকায় আসছেন। কালই তিনি ঢাকা থেকে সরাসরি দিল্লি যাবেন।
মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের একজন জ্যেষ্ঠ মুখপাত্র গত শুক্রবার ওয়াশিংটনে প্রথম আলোকে এ তথ্য জানান। জন কেরির বাংলাদেশ ও ভারত সফরের আগে দুই দেশের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের সম্পর্ক নিয়ে এই বিশেষ ব্রিফিংয়ে এই প্রতিবেদক ছাড়াও ভারতের একাধিক সংবাদপত্রের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।জঙ্গিবাদ দমনে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে বাংলাদেশের ঘনিষ্ঠ সহযোগিতার প্রসঙ্গ টেনে ওই মুখপাত্র বলেন, নিরাপত্তা সহযোগিতার ক্ষেত্রে আর কী কী করা যায়, সে বিষয়ে দুই দেশের মধ্যে নিবিড় আলোচনা চলছে। সাম্প্রতিক জঙ্গি হামলার মুখে বিমান চলাচলে নিরাপত্তা, তথ্যপ্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সহযোগিতার ব্যাপারে দুই দেশ একসঙ্গে কাজ করছে। চিহ্নিত এসব ক্ষেত্রের বাইরে আরও কী করা যেতে পারে, তা নিয়ে জন কেরি বাংলাদেশের নেতাদের সঙ্গে আলোচনার সুযোগ নেবেন। তবে নিরাপত্তা সহযোগিতার ক্ষেত্রে নতুন কোনো চুক্তির সম্ভাবনা নেই বলে জানিয়েছেন মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের ওই মুখপাত্র।
মুখপাত্রের মতে, সন্ত্রাসবাদ একটি বৈশ্বিক সমস্যা, কোনো দেশের পক্ষে একা তা মোকাবিলা করা সম্ভব নয়। আইএস ও আল-কায়েদার মতো সন্ত্রাসী সংগঠনকে মোকাবিলায় যুক্তরাষ্ট্র যে অভিজ্ঞতা অর্জন করেছে, তারা তা বাংলাদেশের সঙ্গে ভাগাভাগি করে নিতে আগ্রহী। সন্ত্রাসী তৎপরতা মোকাবিলার নামে যেন গণতান্ত্রিক মূল্যবোধগুলো কোনোভাবেই বাধাগ্রস্ত না হয়, বাংলাদেশ সফরে জন কেরি এ বিষয়ের ওপর গুরুত্ব দেবেন। নাগরিক অধিকার, বিশেষত বাকস্বাধীনতা ও সংবাদপত্রের স্বাধীনতার ওপর যুক্তরাষ্ট্র যে গুরুত্ব দিচ্ছে, সেটি তিনি জোর দিয়ে উল্লেখ করেন। -ডেস্ক