(দিনাজপুর২৪.কম) ফেসবুকে ট্রোলড হলেন অভিনেত্রী মধুমিতা সরকার। ছবি তোলার ধরন থেকে উন্মুক্ত বক্ষ বিভাজিকা, সব কিছু নিয়েই তাকে কটাক্ষের তিরে বিঁধলেন নেটাগরিকদের একাংশ।
সম্প্রতি ফেসবুকে একটি ছবি পোস্ট করেন মধুমিতা। অভিনেত্রীর পরনে ছিল হাতকাটা, ডিপ নেক টপ, গলায় সরু স্কার্ফ। স্পষ্ট তার বিভাজিকা। ছবি পোস্ট হওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যেই অশ্লীল মন্তব্যে তার কমেন্ট বক্স ভর্তি। একজন লিখেছেন, এই ছবির জন্য পেজ আনলাইক দিলাম। দিনে দুপুরে ভয় পেয়ে গিয়েছি। অন্য একজন প্রশ্ন করলেন, মিডিয়াতে কাজ করছ তাও কেন এমন পোজ? আর কত প্রোডাকশন এবং ডিরেক্টরের অ্যাটেনশন লাগবে তোমার?।

আরেক নেটাগরিক আবার ছবি তোলার ভঙ্গি নিয়েও কটাক্ষ করে বললেন, আমি ভাবলাম কেউ ফাঁসি লেগে ঝুলে পড়ে আছে, পরে দেখলাম মধুমিতা। মধুমিতা একা নন, এর আগে খোলামেলা ছবি পোস্ট করে ট্রোলড হয়েছেন স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায় এবং শ্রীলেখা মিত্রের মতো অভিনেত্রীরাও। এ বিষয়ে শ্রীলেখার বক্তব্য, ক্লিভেজ দেখতে হলে দেখুন, কিন্তু নোংরামি করবেন না। অর্থাৎ নারীর সৌন্দর্যকে উপভোগ করার মধ্যে অন্যায় দেখেন না অভিনেত্রী। কিন্তু সেই সৌন্দর্যকে উপভোগ করার নামে ‘নোংরামি’ করাকে সমর্থন করেন না তিনি। কিন্তু মধুমিতার এই পোস্ট আরও একবার চোখে আঙুল দিয়ে দেখাল, সৌন্দর্যের প্রশংসাকে নয়, কদর্য-কুৎসিত কথাকেই বিনোদনের মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছেন নেটাগরিকদের একাংশ। -ডেস্ক