-সংগ্রহীত

(দিনাজপুর২৪.কম) মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) সাড়ে ৩টার দিকে গুলশানের নিজ বাসভবনে সংবাদ ব্রিফিংয়ে আইনমন্ত্রী আনিসুল হকজানিয়েছিলেন , বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে সরকার শর্ত সাপেক্ষে ছয় মাসের জন্য মুক্তি এ দিন বেলা এ সিদ্ধান্তের কথা জানান তিনি। আইনমন্ত্রী আরো জানান ,বিদেশে গমন না করার শর্তে প্রধানমন্ত্রীর আদেশে খালেদা জিয়ার দণ্ডাদেশ ছয় মাসের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। এ সময় তাকে বাসায় থেকে চিকিৎসা গ্রহণ করতে হবে। বেগম খালেদা জিয়ার বয়স বিবেচনায় মানবিক কারণে সরকার সদয় হয়ে দণ্ডাদেশ স্থগিত রাখার এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এদিকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল মঙ্গলবার রাতে গণমাধ্যমকে জানান , বিএনপির কারাবন্দী চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া মঙ্গলবার রাতে মুক্তি পাচ্ছেন না। তার মুক্তি সংক্রান্ত প্রস্তাবে এখনো স্বাক্ষর করেননি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রাত ৯টার দিকে তিনি বলেন, প্রথমত কোনো বন্দীকে রাতের বেলায় মুক্তি দেয়া হয় না।

খালেদা জিয়ার মুক্তির প্রস্তাবে এখনো অনুমোদন করেননি প্রদানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মাত্র তার কাগজপত্র তৈরি হয়েছে। এটা প্রধানমন্ত্রীর কাছে পাঠানো হবে তিনি অনুমোদন দেবেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সরকারি আদেশ জারি করবে তারপরই তিনি মুক্তি পাবেন। -ডেস্ক