(দিনাজপুর২৪.কম) খানসামা গোবিন্দপুর ভল্লিরডাঙ্গায় বন্যায় ভেঙ্গে যাওয়া চাটাল মেরামতের কাজের সময় ইটের অংশ তুলতে গিয়ে ভিতরে থাকা ২টি গোখরা সাপেঁর কামর থেকে অল্পের জন্য বেচেঁ গেলেন গোবিন্দপুর ভূল্লির ডাঙ্গা গ্রামের চাটাল মালিক মোঃ মাহামুদুল ইসলাম, রাজমিস্ত্রি মোঃ তরিকুল ইসলাম। এ সময় এদের সহযোগী আরও দু’জন রাজমিস্ত্রি এরা হলেন ফরিদুল ইসলাম ও চারুবালা।

চাটালের একত্রিত থাকা ইটের অংশ নিচ থেকে দু’জন তোলার সময়, নিচে থাকা গোখরা সাপঁটি দেখার পর সাপঁ সাপঁ চিৎকারে এলাকার লোকজন ঘটনাস্থলে লাঠি নিয়ে ছুটে আসে। এবং সাপঁটিকে আটক করে ও পরে লক্ষ্য করে দেখা যায় সেখানে আরও ১টি গোখরা সাপঁ রয়েছে।

পরে একত্রিত ইটের অংশ সরায় দিয়ে ওপর সাপঁটিকেও বাহির করে এবং লাটির আঘাতে জখম করে চাটালে সাপঁ ২টিকে একত্রিত করে এলাকাবাসী সাপের খেলা দেখেন। পরে সাপঁ দুটোকে লাটি দিয়ে মেরে ফেলার পর মাটির নিচে পুতে ফেলা হয়। সাপ দু’টির দৈর্ঘ্য প্রায় ৭ফিটের মতো। দীর্ঘ দিন পর গ্রামের লোক-জন একত্রিত হয়ে গোখরা সাপঁ বা সাপেঁর খেলা দেখলো। -ডেস্ক