(দিনাজপুর২৪.কম) টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ষষ্ঠ আসরে মোট রানে সবার ওপরে তামিম ইকবাল। এছাড়া এক ইনিংসে সর্বোচ্চ রান, সর্বোচ্চ ছক্কা ও এক ইনিংসে বাউন্ডারি থেকে আসা সবচেয়ে বেশি রানেও সবার ওপরে বাংলাদেশের উদ্বোধনী এ ব্যাটসম্যান। এছাড়া টুর্নামেন্টে সেরা বোলিং ফিগার বাংলাদেশের উদীয়মান পেসার মুস্তাফিজুর রহমানের। অন্যদিকে ষষ্ঠ আসরের টুর্নামেন্ট সেরা খেলোয়াড় নির্বাচিত হয়েছেন ভারতের বিরাট কোহলি। এই নিয়ে টানা দ্বিতীয় আসরে টুর্নামেন্ট সেরা খেলোয়াড় হলেন তিনি। ২০১৪ সালে বাংলাদেশে হওয়া টুর্নামেন্টের পঞ্চম আসরে সর্বোচ্চ ৩১৯ রান করেন কোহলি। সেবার তার দল ফাইনালে উঠলেও শিরোপার লড়াইয়ে শ্রীলঙ্কার কাছে হেরে যায়। আর এবারের ষষ্ঠ আসরে কোহলি ৫ ম্যাচে ১৩৬.৫০ গড়ে করেন দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২৭৩ রান। সেমিফাইনালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলেন ৪৭ বলে ৮৯ রানের অপরাজিত ইনিংস। কিন্তু লেন্ডল সিমন্সের ৫১ বলে ৮২* রানের কাছে কোহলির ইনিংস হেরে যায়। আর এ আসরে ৬ ম্যাচে ৭৩.৭৫ গড়ে সর্বোচ্চ ২৯৫ রান এসেছে তামিম ইকবালের ব্যাট থেকে। টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ ১০৩* রানের ইনিংসও এসেছে তামিমের ব্যাট থেকে। প্রথম পর্বে ভারতের হিমাচলের ধর্মশালা স্টেডিয়ামে ওমানের বিপক্ষে তিনি এই রান করেন। গ্রুপ পর্বে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ১০০* রান নিয়ে তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিস গেইল। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ষষ্ঠ আসরে এই দু’টি সেঞ্চুরি এসেছে। টি-টোয়ন্টির মারমার কাটকাট এ আসরে সর্বোচ্চ ১৪ ছক্কা এসেছে তামিমের ব্যাট থেকে। ১২ ছক্কা নিয়ে তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে আফগানিস্তানের মোহাম্মদ শাহজাদ। আর তৃতীয় স্থানে থাকা ক্রিস গেইলের ছক্কা ১১টি। অন্যদিকে এবারের আসরে সেরা বোলিং ফিগার মুস্তাফিজুর রহমানের। কলকাতার ইডেন গার্ডেনসে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে তিনি মাত্র ২২ রানে নেন ৫ উইকেট। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ইতিহাসে সবচেয়ে কম বয়সী হিসেবে ৫ উইকেট নেয়ার ঘটনা এটি। এছাড়া এবারের আসরে আর ৫ উইকেট নিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার জেমস ফকনার। মোহালিতে পাকিস্তানের বিপক্ষে তিনি ২৭ রানে নেন ৫ উইকেট।-ডেস্ক