বসুরহাট পৌরসভায় আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ হয়ে একজন নিহত হওয়ার পর আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির আশঙ্কায় বুধবার সকাল ৬টা থেকে রাত ১২টা পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করে উপজেলা প্রশাসন।
গত মঙ্গলবার বিকেল থেকে রাত পর্যন্ত দফায় দফায় চলা সংঘর্ষে একজন নিহত হয়। ১১ জন গুলিবিদ্ধসহ অন্তত ২৫ জন আহত হন। আর ২০শে ফেব্রুয়ারিতে গুলিবিদ্ধ হয়ে মারা যান সাংবাদিক বুরহান উদ্দিন মুজাক্কির। -ডেস্ক