-পুরোনো ছবি

(দিনাজপুর২৪.কম) ঘূর্ণিঝড় আম্পানের তাণ্ডবের রেশ এখনো কাটিয়ে উঠতে পারেনি ভারতের পশ্চিমবঙ্গ। এরইমধ্যে দেশটির মুম্বাইয়ের ১০০ কিলোমিটার দূরে আলিবাগের উপকূলে ঘূর্ণিঝড় নিসর্গ আঘাত হানতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে ভারতীয় আবহাওয়া অধিদপ্তর। নিসর্গ আজ বুধবার দুপুর ১টা থেকে ৩টার মধ্যে আঘাত হানতে পারে বলে এক বুলেটিনে জানানো হয়েছে।

ভারতের আবহাওয়া বার্তায় বলা হয়েছে, নিসর্গের আই বা চোখ প্রায় ৬৫ কিলোমিটার বিস্তৃত। গত এক ঘণ্টায় তার ব্যাস কমেছে। যার অর্থ আরও শক্তিশালী হচ্ছে ঘূর্ণিঝড় নিসর্গ। সেকারণেই বাতাসের গতিবেগ ৮৫-৯০, ৯০-১০০ এবং শেষে ১১০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা পর্যন্ত বেড়েছে। উপকূলে আছড়ে পড়ার সময় ঘূণিঝড় নিগর্সের গতিবেগ ঘণ্টায় ১১০ থেকে ১২০ কিলোমিটার পর্যন্ত হতে পারে। এ ছাড়া সাড়ে ছয় ফুট পর্যন্ত উচ্চতার জলোচ্ছ্বাস হতে পারে বলেও জানানো হয়েছে। ফলে উপকূলে আছড়ে পড়ার পর ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

ঘূর্ণিঝড় নিসর্গ মহারাষ্ট্রের আলিবাগ থেকে ৬০ কিলোমিটার দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমে, মুম্বাই থেকে ১১০ কিলোমিটার দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমে এবং গুজরাটের সুরাট থেকে ৩৪০ কিলোমিটার দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পশ্চিমে অবস্থান করছে। এ ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় মহারাষ্ট্র ও গুজরাটজুড়ে ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। দুই রাজ্যের উপকূল এলাকা থেকে বহু মানুষকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।

বুধবার সকালে কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে, গোয়া এবং মুম্বাইয়ে ডপলার ওয়েদার রাডারে (ডিআরডব্লিউ) এই ঝড় মনিটরিং করা হচ্ছে। ঘূর্ণিঝড়ের সম্ভাব্য গতিপথে মুম্বাইসহ গুজরাট, দাদরা, নগর হাভেলি ও দমন দিউয়ে ব্যপক ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করা হচ্ছে। তাই এই অঞ্চলগুলোতে রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। পাশাপাশি গোয়ায় ভারী বৃষ্টির সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে। -ডেস্ক