(দিনাজপুর২৪.কম) কলকাতার স্ট্র্যান্ড রোডে পূর্ব রেলের নিউ কয়লাঘাট ভবনে ভয়াবহ আগুন লেগে রেল কর্মকর্তা, পুলিশ, ফায়ার সার্ভিসের সদস্যসহ অন্তত নয়জন নিহত হয়েছেন। সোমবার সন্ধ্যায় এ ঘটনা ঘটে। কলকাতার পুলিশ কমিশনার সৌমেন মিত্র এ কথা জানিয়েছেন।

নিহতদের মধ্যে রেলের ডেপুটি চিফ কমার্শিয়াল ম্যানেজার পার্থসারথি মণ্ডল, দমকলের চারকর্মী, পুলিশের এক কর্মকর্তা এবং আরপিএফের একজন রয়েছেন। সবাইকে রাত পর্যন্ত শনাক্ত করা যায়নি। খবর আনন্দবাজারের

রাত ১টা নাগাদ এসএসকেএম হাসপাতালে নয়টি মরদেহ নেওয়া হয়। হাসপাতালে মৃতদের কয়েকজনের পরিবারের লোকজনও এসে পৌঁছন। রেলের ডেপুটি সিসিএম পার্থসারথি মণ্ডলের দেহ শনাক্ত করেন তার মেয়ে ও জামাই।

পার্থসারথির গাড়িচালক সোমনাথ চক্রবর্তী বলেন, ‘স্যার প্রতিদিনই সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা নাগাদ নিচে নেমে আসতেন। আজ আগুন লাগার কিছুক্ষণ পর থেকেই স্যারকে ফোন করতে শুরু করি। কিন্তু ফোনে পাইনি।’ পুলিশ কর্মকর্তা অমিত ভাওয়ালের মরদেহও রাতেই শনাক্ত হয়।

এদিকে রাতেই ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, রেলের অনেক পুরনো ভবন। ভয়াবহ দুর্ঘটনা। আগুন নেভাতে আসা সাতজনের দেহ (তখন পর্যন্ত) পাওয়া গেছে। মৃত সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। এখনও দুইজনের খোঁজ চলছে বলে পুলিশ কমিশনার জানিয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, খুবই দুঃখজনক ঘটনা। মৃতদের প্রত্যেকের পরিবারকে ১০ লাখ টাকা করে ক্ষতিপূরণ দেওয়া ছাড়াও পরিবারের একজনকে সরকারি চাকরি দেওয়া হবে। সবাই খুব লড়াই করে আগুন নিয়ন্ত্রণ করেছেন।

পশ্চিমবঙ্গের দমকলমন্ত্রী সুজিত বসু জানিয়েছেন, তিনি রাতে দমকল ও পুলিশ অফিসারদের সঙ্গে ১৩ তলায় উঠে নিজে মরদেহ দেখে এসেছেন। তার কথায়, ‘১৩ তলায় পৌঁছে লিফটের দরজা খোলার পর আগুনে ঝলসে প্রায় পুড়ে যান তারা। আমরা উপরে ওঠে দেখি, লিফটের মধ্যেই পাঁচজনের মরদেহ পড়ে রয়েছে। বাইরে পড়েছিল আরও দুইজনের দেহ। পোশাক দেখে বোঝা গেছে, তাদের মধ্যে চারজন দমকলকর্মী। এছাড়াও একজন আরপিএফ এবং একজন হেয়ার স্ট্রিট থানার সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই)। একজন ব্যক্তিকে চিহ্নিত করা যায়নি। এছাড়া রেলের দুই কর্মী আহত হয়ে শিয়ালদহে বি আর সিংহ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

প্রাথমিকভাবে রেল সূত্রে জানা গেছে, ১৩ তলায় এসি ফেটে আগুন লাগে। পাশের এলআইসি বিল্ডিংয়ের ক্যান্টিন কর্মীরা প্রথম আগুন দেখতে পেয়ে চিৎকার শুরু করেন। তখন প্রায় ৫০০ জন অফিসে ছিলেন বলে রেল সূত্র জানিয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, সোমবার সন্ধ্যা ৬টা ১০ মিনিটে আগুন লাগে। তার চার ঘণ্টা বাদে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। কিন্তু ততক্ষণে যা ক্ষতি হওয়ার হয়ে গেছে। সন্ধ্যা থেকেই ভেতরে অন্ধকারে বেশ কয়েকজন আটকে রয়েছেন বলে খবর ছড়ায়। -ডেস্ক