(দিনাজপুর২৪.কম) ভারতের কলকাতার জোড়াসাঁকোতে নির্মাণাধীন বিবেকানন্দ ফ্লাইওভার ধসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৪-এ। ধ্বংসস্তূপ থেকে আহত ৭৫ ব্যক্তিকে উদ্ধার করেছে ফায়ার ব্রিগেড ও সেনাবাহিনীর সদস্যরা। সংবাদ মাধ্যম এ খররে এ তথ্য জানা গেছে। তবে সরকারিভাবে মৃতের সংখ্যা ১৬ বলে জানানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার (স্থানীয় সময়) কলকাতার প্রাণকেন্দ্র গনেশ টকির কাছে বাগবাজারের এলাকায় ফ্লাইওভারটি ধসে পড়ে। ধসে পড়ার খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছায় দমকল ও সেনাবাহিনী। স্থানীয় বাসিন্দারাও তাদের সঙ্গে যোগ দেয়। এনডিটিভি জানিয়েছে, ফ্লাইওভার ধসে পুরো শহরে যান চলাচল বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে।

এক প্রত্যক্ষদর্শীকে উদ্ধৃত করে স্থানীয় গণমাধ্যম জানায়, ‘সাড়ে ১২টা নাগাদ বোমা ফাটার মতো আওয়াজ শুনতে পাই। কিছু বুঝে ওঠার আগেই দেখি চোখের সামনে আস্ত একটা উড়ালসেতু ধসে পড়ছে।’ ওই ফ্লাইওভারের একাংশ একটি গাড়ির ওপরে পড়ে।

রাত ৯টার দিকে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি উদ্ধার অভিযান সমাপ্তের ঘোষণা দিলে তা নিয়ে জনমনে প্রশ্নের উদ্রেক হয় বলে জানিয়েছে আনন্দবাজার পত্রিকা।

দুর্ঘটনা তদন্তে রাজ্যের মুখ্যসচিব বাসুদেব বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। পুলিশ স্বতঃপ্রণোদিতভাবে একটি মামলা করেছে।

ফ্লাইওভার নির্মাণ কোম্পানি আইভিআরসিএল সরকারি তদন্তে পূর্ণ সহযোগিতার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে বলে বিবিসি জানিয়েছে।

গিরিশ পার্কের কাছে অত্যন্ত ঘনবসতিপূর্ণ ওই এলাকায় দুই কিলোমিটার দীর্ঘ বিবেকানন্দ ফ্লাইওভারের নির্মাণ কাজ শুরু হয় ২০০৯ সালে। এরপর কয়েক দফা মেয়াদ বাড়ালেও প্রকল্পের কাজ আর শেষ হয়নি। -ডেস্ক