(দিনাজপুর টোয়েন্টিফোর ডটকম) দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আসার আগে খুলছে না শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এই ভাইরাসে সংক্রমণ ও মৃত্যুর হার এখনও উদ্বেগজনকভাবে ঊর্ধ্বমুখী। অভিভাবকরাও ঝুঁকি নিয়ে সন্তানকে স্কুলে পাঠাতে চাচ্ছেন না। বরং পরিস্থিতি এমন যে, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দিলেও অভিভাবকরা সন্তানকে স্কুল-কলেজে পাঠাবেন না। ফলে সবকিছু বিবেচনায় নিয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এখনই না খোলার ব্যাপারেই চিন্তা করছেন দেশের শিক্ষাব্যবস্থার দায়িত্বে থাকা দুই মন্ত্রণালয়ের নীতি-নির্ধারকরা। সংশ্লিষ্ট সূত্রে এমন তথ্য জানা গেছে।

উভয় মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা বলছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতিপূর্বে সেপ্টেম্বরের আগে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে না দেয়ার ব্যাপারে ইঙ্গিত দিয়েছেন। সেটাকেই তারা যথাযথ দিকনির্দেশনা বলে মনে করছেন। তাই প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষা কার্যক্রম বিদ্যমান অবস্থায় রাখা এবং ছাত্রছাত্রীদের বাসায় রেখে লেখাপড়ার ব্যবস্থা বা বিকল্প পাঠদানের চিন্তা চলছে। পাশাপাশি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার ব্যাপারে পরবর্তী ঘোষণা তৈরির কাজ চলছে। ২৮ মে’র (বৃহস্পতিবার) মধ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং ৪ জুনের আগে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় পরবর্তী পরিকল্পনা জানাবে। ডেস্ক রিপোর্ট