(দিনাজপুর২৪.কম)করোনার তাণ্ডবে যেখানে কাঁপছে পুরো বিশ্ব সেখানে লকডাউনে থেকে মানুষ কমিয়েছে সৌন্দর্য চর্চার ব্যবহার। লকডাউনের কারণে সারাদিন রাত বাড়িতে কাটাতে হচ্ছে তাদের। বাড়ির মধ্যে থেকে কি আদৌতে মানুষ সৌন্দর্য চর্চার পিছনে সময় দিচ্ছে কি না সেইটাই এখন দেখার বিষয়।

সৌন্দর্য চর্চায় আর নিজের যত্নে যুগ যুগ ধরে ব্যবহৃত হয়ে আসছে কসমেটিকস। মানুষ সাধারণত বাইরের বাইরে গেলে ফিটফাট হয়ে বের হয়।  অনেকেই আছেন সামান্য কাজে বের হতে ফাউন্ডেশন ক্রিম লাগাতে, একটু ব্রাশ বুলিয়ে নিতে ভুল করবেন না। কিন্তু সবকিছুর চিত্র এখন উল্টো। মানুষ ঘরে বসেই সময় কাটাচ্ছে।  এখন যারা ঘরে বসে কাজ করছে তাদের মেকআপ করার প্রয়োজনীয়তা নেই বললেই চলে।

লকডাউনের মধ্যে শুরু হয়েছে সৌন্দর্য চর্চার অনলাইনে কার্যক্রম। এরই মধ্যে যুক্তরাজ্য, জার্মানী,ফ্রান্স,ইতালি,স্পেনের বিভিন্ন ব্র্যান্ড তাদের অনলাইন বেচা কেনা শুরু করেছে। তবে ফেইস ক্রিম,ফেইস মাস্ক, মেকআপ রিমুভার যেগুলা আগে কেনার জন্য অনলাইনে অ্যাপোয়েন্টমেন্ট নিতে হত সেগুলো এখন বিক্রি হচ্ছে নামমাত্র। এরই মধ্যে বন্ধ হয়েছে সেলুন, পার্লার, স্পা সেন্টার। এতে করে হুমকির মুখে পড়ছে লাখো মানুষের  জীবিকা। যাদের বিয়ে বা অন্যান্য প্রোগ্রামের জন্য পার্লার বুকিং দেওয়া ছিল সবকিছু স্থগিত হয়েছে। হতাশার মুখে পড়েছে ব্যবসায়ীরা। এখন ঘরে বসেই ঘরে ব্যবহৃত জিনিস দিয়ে নিজের সৌন্দর্য চর্চার কাজ করছে মানুষ।

এরই মধ্যে করোনার কারণে সৌন্দর্য খাতে কি পরিমাণ ক্ষতি হবে সে বিষয়ে একটি রিপোর্ট তৈরি করেছে যুক্তরাজ্য। যাতে দেখা যায়  শুধুমাত্র ইংল্যান্ডেই ১০ লাখের মত মানুষ কর্মহীন হবে।-ডেস্ক