(দিনাজপুর টোয়েন্টিফোর ডটকম) গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী করোনাভাইরাস মুক্ত হয়েছেন। গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র উদ্ভাবিত এন্টিজেন কিট দিয়ে নতুন পরীক্ষায় তার শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি পাওয়া যায়নি। তবে এ তথ্য তাকে এখনও জানানো হয়নি।

জাফরুল্লাহর করোনা মুক্তির তথ্য নিশ্চিত করেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রে আবিষ্কৃত এ ভাইরাস শনাক্তকরণ কিটের উদ্ভাবক ড. বিজন কুমার শীল। তিনি বলেন, ‘আমি নিজে অ্যান্টিজেন ও অ্যান্টিবডি কিট দিয়ে ডা. জাফরুল্লাহর পরীক্ষা করেছি। পরীক্ষার যে ফলাফল পেয়েছি তাতে নিশ্চিতভাবেই বলা যায় তিনি করোনামুক্ত হয়েছেন। তিনি সুস্থ হয়ে উঠছেন। তার শরীরে যথেষ্ট অ্যান্টিবডি তৈরি হয়েছে। তাকে এখন সুস্থ বলা যায়।’

তবে তার এখনো কিডনি সমস্যা আছে জানিয়ে বিজন কুমার  বলেন, ‘তার কিডনির সমস্যা এবং গত কিছুদিন যে ধকল গেছে তাতে আরও পাঁচ দিন তাকে হাসপাতালে থাকতে হবে। যদিও তিনি আর হাসপাতালে থাকতে চাইছেন না। এ কারণে গতকাল পরীক্ষায় কোভিড-১৯ নেগেটিভ আসার পরও তাকে তখন এটা জানানো হয়নি।’

ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর বর্তমান অবস্থা জানিয়েছেন গণস্বাস্থ্য সমাজভিত্তিক মেডিকেল কলেজের উপাধ্যক্ষ ডা. মহিবুল্লাহ খন্দকার। তিনি বলেন, ‘পরীক্ষায় ডা. জাফরুল্লাহর দেহে যথেষ্ট পরিমাণে অ্যান্টিবডির উপস্থিতি পাওয়া গেছে। আজ সারাদিন তিনি স্বাভাবিকভাবে শ্বাস নিয়েছেন। বাড়তি অক্সিজেন ছাড়াই তিনি আজ প্রায় সারাদিন অক্সিজেন স্যাচুরেশন ৯৫% রাখতে পেরেছেন।’ -ডেক্স রিপোর্ট