(দিনাজপুর২৪.কম) বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির বলেছেন, প্রবাসী আয় প্রায় ১৭ শতাংশ কমে গেছে। তিনি বলেন, এটি আমাদের জন্য বড় উদ্বেগের। তা নিয়ে আমরা কাজ করছি। প্রবাসীরা যাতে ব্যাংকিং চ্যানেলে রেমিটেন্স পাঠান সেবিষয়ে উৎসাহ দেয়া হচ্ছে। আজ মঙ্গলবার বিকেলে বাংলাদেশ ব্যাংকে ব্যবসায়ীদের সংগঠন ঢাকা চেম্বারের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বৈঠককালে গভর্নর এসব কথা বলেন। বৈঠকে বাংলাদেশ ব্যাংকের ডেপুটি গভর্নর এসকে সুর চৌধুরীসহ ঢাকা চেম্বারের নেতারা উপস্থিতি ছিলেন। এদিকে প্রতিনিধি দলটির নেতৃত্ব দেন সংগঠনের সভাপতি আবুল কাশেম খান।
ব্যাংকিং খাতের অটোমেশন যাতে কোনোভাবেই সাইবার ঝুঁকি তৈরি না করে তা কেন্দ্রীয় ব্যাংক নজরদারি করছে জানিয়ে গভর্নর বলেন, সব ব্যাংককে অটোমেশন ও গ্রহণযোগ্য প্রযুক্তিতে আনাই বড় কাজ। তিনি বলেন, তরুণরা যাতে নতুন নতুন উদ্যোগ নিয়ে কাজ করে সেদিকে আমাদের যেতে হবে। এতে কর্মসংস্থান বাড়বে।
এসময় আবুল কাশেম খান বলেন, খেলাপি ঋণ বড় চিন্তার বিষয়। যার প্রভাবে ঋণের সুদ হার বাড়ে। এ থেকে পরিত্রাণ পেতে আমাদের ভালো আর্থিক পদ্ধতি গড়ে তুলতে হবে এবং ভালো গ্রাহকদের ঋণ দিতে হবে। তিনি বলেন, আমাদের প্রতিবছর ২০ থেকে ২২ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ দরকার অবকাঠামোতে। ২০৩০ সাল নাগাদ বিনিয়োগ জিডিপির ৩৫ শতাংশে নিয়ে যেতে হবে। -ডেস্ক