-সংগ্রহীত

(দিনাজপুর২৪.কম) ওয়াসার সরবরাহকৃত পানি দিয়ে শরবত বানিয়ে প্রতিষ্ঠানটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) কে পান করানোর জন্য রাজধানীর কাওরানবাজারের ওয়াসা ভবনের সামনে  অবস্থান নিয়েছেন জুরাইনবাসী। আজ সকাল থেকে তারা অবস্থান নেন। এ সময় চারপাশে উৎসুক মানুষের ভিড় জমে। এদিকে তাদের উপস্থিত হওয়ার প্রেক্ষিতে সেখানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। অবস্থানকারীরা এমডির সঙ্গে দেখা করতে ভবনের ভেতরে যেতে চাইলে পুলিশ তাদের বাধা দেয়।

এমডি প্রকৌশলী তাকসিমে খান দেখা না করলেও তাদের ভবনে ডেকে নিয়ে যান কর্তৃপক্ষ। কথা বলেন, ডাইরেক্টর (টেকনিক্যাল) এ কে এম সহিদ উদ্দিন। কিছু এলাকায় এই সমস্যা আছে বলে স্বীকার করলেও তিনি পুরো রাজধানীতে ওয়াসার পানিতে সমস্যা মানতে নারাজ।

এ সময় তিনি অবস্থানকারীদের আশ্বাস দেন- যেসব এলাকায় সমস্যা আছে সেসব এলাকায় দ্রুত সমাধান করা হবে।

এ সময় তিনি বারবার জুরাইনবাসীদের কথার বেড়াজালে পড়েন। তারা অভিযোগ করেন, বারবার অভিযোগের পরেও আপনারা কোন ব্যবস্থা নেননি। তখন সহিদ উদ্দিন বলেন, আপনারা যথাযথভাবে অভিযোগ পেশ করেননি।
এর আগে সকাল থেকে পানি ও শরবর বানানোর উপাদান সামগ্রী ও হাতে প্লাকার্ড নিয়ে ভবনের সামনে অবস্থান নেয়।

এ সময় ঢাকা ওয়াসার পানি হাতে জুরাইনবাসী মিজানুর রহমান জানান, এমডিকে এই পানি খেতে হবে কিংবা তার বক্তব্যের জন্য দুঃখ প্রকাশ করতে হবে। বলেন, আমরা ওয়াসার বিল নিয়মিত পরিশোধ করে আসছি। তবে কেন আমরা এই পানি পাবো? তিনি বললেন পানি সুপেয় তিনি খেয়ে দেখাক পানি সুপেয়। এই পানি এতটাই দুর্গন্ধ এবং ময়লাযুক্ত, যা না ফুটিয়ে খেলে ডিসেন্ট্রি মাস্ট। তিনি বললেন, ট্যাংকিতে ময়লা থাকতে পারে। কিন্তু এই গায়েবী ময়লা কোথা থেকে আসলো। ময়লা থাকলে এটাও দেখার দায়িত্ব তার।

এছাড়াও তারা  খাল নর্দমা পুর্নখনন, পয়:নিষ্কাশনের জন্য আন্ডার সুয়ারেজের পরিকল্পনা, ওয়াসার ফেটে যাওয়া পাইপ ঠিক করাসহ নানা দাবি জানান।

গত ২০শে এপ্রিল ওয়াসার এমডি দাবি করেন, প্রতিষ্ঠানটির সরবরাহকৃত পানি শতভাগ সুপেয়। তার এমন দাবির প্রেক্ষিতেই আজ এই কর্মসূচি পালন করে রাজধানীর জুরাইনবাসী।  -ডেস্ক