ফাইল ছবি

মো: নুরুজ্জামান (দিনাজপুর২৪.কম) আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ এমপি বলেছেন, জনগণের মান রাখতে সুলতান মোহাম্মদ মনসুরের পথ ধরে ঐক্যফ্রন্টের বাকি নির্বাচিতরাও অচিরেই শপথ নেবেন। আর তারা শপথ না নিলে জনগণই এর জবাব দেবে।

শুক্রবার সকালে ৭ম এনডিএফ বিডি-কুএমসি জাতীয় মেডিকেল বিতকৃ উৎসবে উদ্বোধনের আগে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। হানিফ বলেন, সুলতান মনসুর ঐক্যফ্রন্ট থেকে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করে জয়ী হয়েছেন। তিনি সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়ে শপথ গ্রহণ করে সংসদে যোগ দিয়েছেন। তার দেখাদেখি ঐক্যফ্রন্ট থেকে বিএনপির যারা নির্বাচন করেছিলেন তারাও শপথ নেবেন বলে আশা করছি।

তিনি আরও বলেন, খালেদা জিয়া আদালত থেকে দণ্ড পাওয়া কয়েদি। কারা বিধি অনুযায়ী, দণ্ডপ্রাপ্ত খালেদা জিয়া যে চিকিৎসা সেবা পাচ্ছেন তা দেশের সর্বোচ্চ। তার উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজন হলে কারা কর্তৃপক্ষ চিকিৎসকদের সঙ্গে পরামর্শ করে ব্যবস্থা নেবেন। কিন্তু তার অসুস্থতা নিয়েও রাজনীতি করছে বিএনপি। তাদের কোনো জনসমর্থন নেই বলে এসব বলে মাঠ গরম করার চেষ্টা করছে।

বিএনপির আন্দোলন করার কোনো ক্ষমতা নেই মন্তব্য করে হানিফ আরও বলেন, ২০১০ সালের পর থেকেই তারা সরকার হঠানোর আওয়াজ দিয়ে আসছেন। তবে তাদের সেই আহ্বানে দেশের জনগণ সাড়া দেয়নি। এখন তারা পলাতক দন্ডপ্রাপ্ত নেতাকে বাঁচাতে নানা ফন্দি-ফিকির করছে। তবে এসবে কোনো কাজ হবে।

সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরের চিকিৎসার প্রসঙ্গে হানিফ বলেন, তিনি ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছেন। সেখানে তার হার্টের বাইপাস সার্জারি করা হবে। দুয়েক সপ্তাহের মধ্যে তিনি পুরোপুরি সুস্থ হয়ে দেশে ফিরে আসবেন বলে আশা করছি।

পরে মাহবুবউল আলম হানিফ জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও পায়রা উড়িয়ে বিতর্ক উৎসবের উদ্বোধন করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন-

কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. এসএম মুস্তানজীদ, এনডিএফ বিডির চেয়ারম্যান একেএম শোয়েব, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আজগর আলী, যুগ্ম সম্পাদক ফারুকউজ জামান, সাংগঠনিক সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম সুমন প্রমুখ।