(দিনাজপুর২৪.কম) প্রাণঘাতী করোনার প্রকোপে সঠিক সময়ে ভাড়া দিতে না পারায় ৩ সন্তানসহ একটি পরিবারকে বাসা থেকে বের করে দিলেন রাজধানী ঢাকার কলাবাগানের এক বাড়িওয়ালা।

পরে পুলিশের হস্তক্ষেপেও রাতভর চেষ্টা করে পরিবারটির স্থান হয়নি ওই বাসায়। সর্বশেষ বাড্ডায় মায়ের বাসায় ঠাঁই হয় তাদের।

এর আগে মধ্যরাতে আকাশে বৃষ্টির চোখ রাঙানি এক দুই ফোটা বৃষ্টিও হয়েছে। তখন রাজধানীর কলাবাগানের ওই বাসার সামনে কুলসুম, সেলিম দম্পতির আহাজারি দেখেছে মানুষ।

দুই মাসের শিশু তাউসিফসহ তিন সন্তানকে নিয়ে রাস্তায়, মাত্র ১ মাসের বকেয়া ভাড়ার জন্য বাসা থেকে বের করে তালা দিয়েছে বাড়িওয়ালা।

পুলিশ গণমাধ্যমের বহু চেষ্টার পরও বাসায় প্রবেশ করতে না পেরে কলাবাগান থানায় যান পরিবারটি। ওইসময় বাবা সচিবালয়ের কর্মকর্তা পরিচয় দেয়া বাসার মালিক সম্পা আক্তার ফোনের ওপাশ থেকে পরিবারটির বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ করেন পুলিশের কাছে।

সম্পা আক্তার বলেন, আমরা আব্বা সচিবালয়ে চাকরি করেন। আমার ভাই র‍্যাবে চাকরি করেন। ওদেরকেই জিজ্ঞাসা করেন কেন বের করে দেয়া হয়েছে। ওরা ভাঙচুর করেছে। মারপিট করেছে।

পুলিশের কর্মকর্তা বলেন, আমরা বলেছি অন্তত একটা রাত তাদের থাকতে দেন। কিন্তু তারা শোনেনি।

পরে উপায় না পেয়ে বাড্ডায় কুলসুমের মায়ের বাসায় আশ্রয় নেয় পরিবারটি। তারা বলেন, টাকা দাও না হলে বের হয়ে যাও। আমরা এই অবস্থায় উনাদের টাকা দিবো কিভাবে বলেন।

করোনা সংক্রমণে আতঙ্কিত যখন পুরোদেশ তখন মধ্যরাতে এমন ঘটনা কারো প্রতি কাম্য নয়। -ডেস্ক