(দিনাজপুর২৪.কম) আগামী ১ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হচ্ছে মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) ও সমমানের পরীক্ষা। এ কারণে ২৫ জানুয়ারি থেকে ২৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত দেশের সব কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

বৃহস্পতিবার (১৬ জানুয়ারি) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার আইনশৃঙ্খলা নিরাপত্তা-সংক্রান্ত কমিটির সভা শেষে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এ নির্দেশনার কথা জানান। সভায় তিনি পরীক্ষার বিভিন্ন তথ্য তুলে ধরেন। এ সময় শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলও উপস্থিত ছিলেন।

পরীক্ষায় নকল এড়াতে এবার বিভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করেছে সরকার। তার মধ্যে প্রশ্নপত্রের সেট নির্ধারণ একটি। বিষয়টি নিয়ে সচিবালয়ে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ‘পরীক্ষা শুরুর ২৫ মিনিট আগে একটি এসএমএস’র মাধ্যমে সংশ্লিষ্টদের কাছে প্রশ্নপত্রের সেটকোড পাঠিয়ে দেওয়া হবে।’

পরীক্ষার্থীদের ৩০ মিনিট আগে কেন্দ্রের ভেতর প্রবেশ করতে হবে বলে জানান মন্ত্রী। কোনো কারণে দেরি হলে প্রবশেপত্র দিলে রোল নম্বর দিয়ে বিলম্বের তারিখ শিক্ষা বোর্ডে প্রতিবেদনের মাধ্যমে জমা দিতে হবে বলেও জানান তিনি।

পরীক্ষাকেন্দ্রে মোবাইল ফোনের বিধিনিষেধ সম্পর্কে দীপু মনি বলেন, ‘কেন্দ্র সচিব ব্যতীত অন্য কেউ মোবাইল ব্যবহার করতে পারবেন না। অন্য কোনো ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস নিয়ে কোনো ব্যক্তি পরীক্ষা কেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারবেন না। কেন্দ্র সচিবই কেবল মোবাইল ব্যবহার করতে পারবেন, তবে তা স্মার্টফোন ব্যতীত।’

এসএসসি পরীক্ষা সুষ্ঠু-সুন্দর ও নকলমুক্ত করতে আগামী ২৫ জানুয়ারি থেকে ২৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সব কোচিং বন্ধ থাকবে বলেও সংবাদ সম্মেলনে জানান মন্ত্রী।

৯টি সাধারণ বোর্ড, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের আওতায় শুরু হওয়া এসএসসি ও সমসমানের পরীক্ষায় অংশ নেবে ১০ লাখ ২৪ হাজার ৩৬৩ জন ছাত্র। ছাত্রীদের সংখ্যা ছাত্রী ১০ লাখ ২৩ হাজার ৪১৬ জন।

শুধু এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে ১৬ লাখ ৩৫ হাজার ২৪০ জন। অন্যান্য পরীক্ষায় ২ লাখ ৮১ হাজার ২৫৪ জন অংশ গ্রহণ করবে এবং ভোকেশনাল পরীক্ষায় অংশ নেবে ১ লাখ ৩১ হাজার ২৮৫ জন শিক্ষার্থী। -ডেস্ক