(দিনাজপুর২৪.কম) ফুলবাড়ি উপজেলার এলুয়ারী ইউনিয়নের প্রতিটি কমিউনিটি পর্যায়ে শিশু ও মাতৃ-সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে  কমিউনিটি পর্যায়ে এক আলোচনা সভা করেন  ফুলবাড়ি এডিপি,ওর্য়াল্ড ভিশন বাংলাদেশ-এর  নবকলি প্রকল্পের কর্মকর্তা , কর্মচারি, শোলাকুড়ি কমিউনিটি গ্রুপের সদস্য। গত রবিবার এলুয়ারী ইউনিয়নের শোলাকুড়ি কমিউনিটি ক্লিনিক -এ   তারা এই মিটিং করেন।
মিটিং-য়ে বক্তারা বলেন কমিউনিটি পর্যায়ে শিশুদের পুষ্টি কার্যক্রমকে গতিশীল করা এবং মা ও শিশুর স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করা এবং মা ও শিশুর স্বাস্থ্যসেবা কমিউনিটি পর্যায়ের ভুমিকা ও সচেতনতা বাড়াতে হবে। এজন্যই কমিউনিটি পর্যায় থেকেই নবকলি প্রল্পের কার্যক্রমকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। এ ছাড়া প্রকল্পের কাজের অগ্রগতি এবং কার্যক্রম সর্ম্পকে সমন্বয় বিষয়ে আলোচনা হয়।
কমিউনিটি পর্যায়ে এক আলোচনা সভা উপস্থিত ছিলেন এলুয়ারী ইউনিয়নের শোলাকুড়ি কমিউনিটি গ্রুপের সভাপতি আলহাজ মোঃ মকবুল হোসেন, সহ-সভাপতি মোঃ শাহিদুল ইসলাম, ফুলবাড়ি এডিপি,ওর্য়াল্ড ভিশন বাংলাদেশ-এর  নবকলি প্রকল্পের  জাহিদুল ইসলাম (সি এইচ সি পি)  তুহিন আলম (এইচ পি ও)  শ্রী ললিতা রানী সাহা ( এফ ডব্লিউ এ)। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সুশীল সমাজের প্রতিনিধি ও কমিউনিটি গ্রুপ এর অন্যান্য সদস্যরা ।

‘বয়ঃসন্ধিকাল ও পুষ্টি’ বিষয়ে রচনা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

ফুলবাড়ি প্রতিনিধিঃ ফুলবাড়ি উপজেলার কাজিহাল ইউনিয়নের মিরপুর উচ্চ বিদ্যালয়ে গত বুধবার ফুলবাড়ি এডিপি, ওর্য়াল্ড ভিশন বাংলাদেশ-এর নবকলি প্রকল্পের সহযোগিতায় ‘বয়ঃসন্ধিকাল ও পুষ্টি’ বিষয়ে রচনা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।
রচনা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠানে কৈশরী বয়সে স্বাস্থ্য ও পুষ্টি সম্পর্কে সচেতনতা নিয়ে আলোচনাকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কাজিহাল ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ মানিক রতন বলেন, “শিশুদের সুপ্ত প্রতিভা বিকাশে ফুলবাড়ি এডিপি,ওর্য়াল্ড ভিশন বাংলাদেশ-এর  নবকলি প্রকল্পের কর্মকতারা সচেষ্ট। তারা একই সাথে শিশুদের মেধা বিকাশ ও পুষ্টির চাহিদা নিরুপণে কাজ করে যাচ্ছে।”
আলোচনা শেষে রচনা প্রতিযোগিতায় প্রথম ৫ জনকে বিজয়ী হিসেবে পুরস্কার প্রদান করা হয়। বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন কাজিহাল ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ মানিক রতন,  ফুলবাড়ি এডিপি,ওর্য়াল্ড ভিশন বাংলাদেশ-এর  নবকলি প্রকল্পের কর্মকতা মোঃ মাহমুদ হাসান ও মিরপুর উচ্চ বিদ্যালয়,কাজিহাল স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ ইউনুছ আলী।
উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অর্থনৈতিক উন্নয়ন কর্মকর্তা মোঃ খাইরূল ইসলাম, এইচপিও মোঃ তুহিন আলম। এছাড়াও সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, মিরপুর উচ্চ বিদ্যালয়-এর অন্যান্য শিক্ষক ও ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ্ব।