প্রশাসনিক ভবনের ফটকের সামনে অবস্থান নেওয়া 'চাকরি প্রত্যাশী' ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। ছবি-সংগ্রহীত

(দিনাজপুর২৪.কম) রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) প্রশাসনিক ভবনে তালা দিয়ে অবরোধ করেছে ‘চাকরি প্রত্যাশী’ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা। আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে প্রশাসনিক ভবনের ফটকের সামনে অবস্থান নেন তারা। প্রশাসন ভবন তালাবদ্ধ করায় কর্মকর্তা-কর্মচারীরা ভবনের ভেতরে প্রবেশ করতে পারছেন না। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত অবরোধ অব্যাহত রয়েছে।

এর আগে,গতকাল সোমবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে উপাচার্যের বাসভবনে তালা দেন ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। প্রায় ১২ ঘণ্টা পর আজ মঙ্গলবার সকালে উপাচার্যের বাসভবনের তালা খুলে দেওয়া হয়।

প্রশাসনিক ভবনের সামনে অবস্থান নেওয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি মাহাফুজ আল-আমিন বলেন, যতক্ষণ পর্যন্ত কোনো একটা সমাধান না আসবে,আমরা আশ্বাস না পাওয়া পর্যন্ত এখানে অবস্থান নেব।

বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, গতকাল সোমবার অফিস চলাকালে মো. জালাল নামে একজনকে সেকশন অফিসার পদে এডহক নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। বিষয়টি জানাজানি হলে চাকরি প্রার্থীরা সন্ধ্যার পর থেকে উপাচার্যের বাসভবনের সামনে জড়ো হতে থাকেন। তারপর ছাত্রলীগের বর্তমান কমিটির সভাপতি গোলাম কিবরিয়ার নেতৃত্বে ৬ জনের একটি প্রতিনিধিদল উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহানের সঙ্গে সাক্ষাৎ করতে তার বাসভবনের ভেতরে যান। সেখান থেকে বেরিয়ে এসে রাত সাড়ে ৯টার দিকে বাসভবনে তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হয়।

এ বিষয়ে রাবি উপাচার্য অধ্যাপক এম আব্দুস সোবহান বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে একটি চিঠি দেওয়া হয়েছে একজন প্রতিবন্ধী ছেলেকে চাকরি দেওয়ার জন্য। যেহেতু নিয়োগ বন্ধে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশ আছে। তাই আমি বিষয়টি নিয়ে শিক্ষা সচিবের সঙ্গে কথা বলেছি। তিনি নিয়োগ দিতে বলেছেন।’

তিনি আরও বলেন, গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় ছাত্রলীগ নেতারা এসে চাকরির দাবি করে। আমি জানিয়েছি সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী নিয়োগ বন্ধ রাখা হয়েছে। এখন আমি নিয়োগ দিতে পারবো না। -ডেস্ক