(দিনাজপুর২৪.কম) লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার প্রতিযোগিতার মাধ্যমে শোবিজ অঙ্গনে অনেক তারকাই পা রেখেছেন। নিজের মেধা আর পরিশ্রম দিয়ে তৈরি করেছেন ক্যারিয়ারের শক্ত অবস্থান। এ তালিকায় রয়েছেন অভিনেত্রী ঊর্মিলা শ্রাবন্তী কর। আইন বিষয়ে পড়াশোনা করেও অভিনয়ে নিজের ষোলো আনা সঁপে দিয়েছেন এই অভিনেত্রী। শুধু অভিনয়ই নয়, গানেও রয়েছে তার সমান পদচারণা। তবে এ মুহূর্তে সম্পূর্ণ মনোযোগ দিয়েছেন অভিনয়ে। মিডিয়ার এ মাধ্যমটিতে নিজেকে অন্য উচ্চতায় নিয়ে যেতে দিন-রাত অক্লান্ত শ্রম দিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। সে জন্য নিজেকে ব্যস্তও রেখেছেন ঊর্মিলা। প্রতিদিন সকাল থেকে রাত পর্যন্ত শুটিংয়ে সময় যাচ্ছে তার। কাজ করছেন একাধিক ধারাবাহিক ও আসন্ন কোরবানির ঈদ উপলক্ষে বিশেষ নাটকের। সমপ্রতি ঈদের জন্য মাহমুদ দিদার, চয়নিকা চৌধুরী, শিহাব শাহীন ও গৌতম কৈরীসহ বেশ কিছু জনপ্রিয় নির্মাতার নাটকে অভিনয় করেছেন ঊর্মিলা। এরই ধারাবাহিকতায় ঈদের আগ মুহূর্ত পর্যন্ত টানা বিশেষ নাটকের কাজই চলবে বলে জানান জনপ্রিয় এ অভিনেত্রী। নিজের ব্যস্ততা প্রসঙ্গে ঊর্মিলা বলেন, ঈদের নাটকেরই কাজ বেশি চলছে এখন। প্রতিদিনই শুটিং। কোনো বিরতি পাচ্ছি না। রোজার ঈদের চেয়ে মনে হচ্ছে এবার ব্যস্ততা বেশিই যাচ্ছে। তবে গতবারের তুলনায় এবার আরো বেশি চমকে ভরা কিছু কাজ নিয়ে হাজির হবো। এটা বলছি এ কারণে যে, এ যাবৎ যে কয়টি নাটকের শুটিং শেষ করেছি প্রতিটির গল্প দারুণভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। বিশেষত গল্পগুলো বলার ধরন একটু অন্যরকমই। আশা করছি দর্শকের জন্য ভালো কিছু নিয়ে পর্দায় হাজির হবো। অভিনয়ের পাশাপাশি মাঝে মধ্যে টিভি পর্দায় গানও গাইতে দেখা যায় ঊর্মিলাকে। কিছুদিন আগেও আরটিভির একটি সরাসরি আড্ডার অনুষ্ঠানে দর্শক-ভক্তদের জন্য গান পরিবেশন করেছেন তিনি। আসছে ঈদের জন্যও একটি চ্যানেলে গানের অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন বলে জানান ঊর্মিলা। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, আমি ছোটবেলা থেকেই গানের সঙ্গে সম্পৃক্ত। স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের যেকোনো অনুষ্ঠান হলেই গাইতে হতো আমাকে। গান আমার মূল পেশা না হলেও এর প্রতি অন্যরকম এক দুর্বলতা সবসময়ই কাজ করে। কারণ আমার বাবাও গানপাগল মানুষ। এবার ঈদের একটি অনুষ্ঠানে অংশ নেয়ার কথা রয়েছে। তবে সব চূড়ান্ত হয়নি। মিডিয়ার কাজের পাশাপাশি রাজনীতির সঙ্গেও জড়িত ঊর্মিলা। বিশ্ববিদ্যালয় জীবন থেকে এ কাজটিতে তিনি নিজেকে প্রত্যক্ষভাবে জড়িয়ে রেখেছেন। এ নিয়ে ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কথা জানাতে গিয়ে তিনি বলেন, রাজনীতিতে নিয়মিত সক্রিয় থাকার ইচ্ছা আছে। এ কাজটির মাধ্যমে আমি মানুষের দুঃখ-কষ্ট নিজে থেকে লাঘব করতে চাই। একজন সফল রাজনীতিবিদের জন্য এ কাজ করা অনেকটা সহজ। দেখা যাক কি হয়! আমি শুধু বলব, আমার প্রবল ইচ্ছা আছে। মানুষের জন্য কিছু করতে চাই। কারণ আমি মনে করি, সমাজের প্রতি আমার দায়বদ্ধতা আছে। -ডেস্ক