(দিনাজপুর২৪.কম) এক মেয়রপ্রার্থীকে খুনের ঘটনায় জড়িত থাকার সন্দেহে মেক্সিকোর ওকাম্পো শহরের পুলিশ বাহিনীর সব সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে দেশটির কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা বাহিনী।স্থানীয় সময় রোববার ভোরে শহরের ২৭ পুলিশ অফিসারের সবাইকে এবং স্থানীয় জননিরাপত্তা সচিবকে মেক্সিকোর ফেডারেল বাহিনী আটক করে। বৃহস্পতিবার (২৪জুন) সকালে ৬৪ বছর বয়সী ফারনান্দো অ্যান্জেলেস হুয়ারেজকে তার বাসার সামনেই কয়েকজন অজ্ঞাত বন্দুকধারী গুলি করে পালিয়ে যায়। ১ জুলাইয়ের সাধারণ নির্বাচনের আগে এ নিয়ে শতাধিক মেক্সিকান রাজনীতিক খুন হলেন। গত এক সপ্তাহেই হুয়ারেজ তৃতীয় নিহত রাজনীতিক। বিবিসি জানায়, হুয়ারেজ ছিলেন একজন সফল ব্যবসায়ী। রাজনৈতিক অভিজ্ঞতা তার খুব বেশি ছিল না।

কিন্তু চলমান প্রকট দারিদ্র্য, বৈষম্য আর দুর্নীতি তিনি আর সহ্য করতে পারছিলেন না বলেই নির্বাচনে দাঁড়িয়েছিলেন বলে এল ইউনিভার্সাল পত্রিকাকে জানান তার ঘনিষ্ঠ বন্ধুদের একজন মিগুয়েল মালাগন।প্রথমে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে লড়ার কথা ভাবলেও পরে মেক্সিকোর অন্যতম প্রধান রাজনৈতিক দল বাম-মধ্যপন্থি পার্টি অব দ্য ডেমোক্রেটিক রেভ্যুলেশন (পিআরডি)-তে যোগ দেন হুয়ারেজ।

হত্যাকাণ্ডের পর আইনজীবীরা ওকাম্পোর স্থানীয় জননিরাপত্তা সচিব অস্কার গোনজালেস গার্সিয়ার বিরুদ্ধে হুয়ারেজ হত্যায় সম্পৃক্ত থাকার অভিযোগ তোলেন। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে শনিবার সকালে মেক্সিকান ফেডারেল এজেন্টরা গার্সিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করতে গেলে স্থানীয় পুলিশ সদস্যরা তাদের বাধা দেন। ওই সময় ফেডারেল এজেন্টরা ফিরে গেলেও রোববার সকালে আরও বেশি সদস্য নিয়ে ফিরে আসেন এবং তাদের সবাইকে হাতকড়া পরিয়ে ধরে নিয়ে যান। -ডেস্ক