(দিনাজপুর২৪.কম) দুর্যোগ মোকাবিলার দায়িত্বপ্রাপ্ত দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় অভিভাবকহীন। কারণ, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও সচিব এখন দু’জনই বিদেশ সফরে রয়েছেন। এছাড়া দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক (ডিজি) রিয়াজ আহমেদও রয়েছেন বিদেশে। ‘গ্লোবাল প্ল্যাটফরম ফর ডিজাস্টার রিস্ক রিডাকশান’ শীর্ষক আন্তর্জাতিক সম্মেলনে যোগ দিতে গত ২৩শে মে মেক্সিকোর কানকুনে গেছেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া ও সচিব শাহ কামাল। মায়া ২০ সদস্যের বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক এ প্রতিনিধি দলে রয়েছেন। ২০১১ সালের ১৯শে জুন প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে বিদেশ ভ্রমণের অনুমতি ও অনুসরণীয় আনুষঙ্গিক বিষয়াদি নিয়ে জারি করা পরিপত্রে বলা হয়, মন্ত্রণালয়ের দায়িত্বপ্রাপ্ত মন্ত্রী ও সচিব/ভারপ্রাপ্ত সচিবদের একসঙ্গে বিদেশভ্রমণ সাধারণভাবে পরিহার করতে হবে। জাতীয় স্বার্থে বিশেষ ক্ষেত্রে (যেমন বিশ্বব্যাংক, আইএমএফ-এর বার্ষিক সভা, দাতাগোষ্ঠীর সভা) একত্রে বিদেশভ্রমণ অপরিহার্য হলে অত্যন্ত সীমিত ক্ষেত্রে এর ব্যত্যয় করা যেতে পারে। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পরিপত্রে এ ধরনের ভ্রমণ পরিহার করার কথা বলা হলেও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রী ও সচিবের একসঙ্গে বিদেশ সফর নিয়ে বিভিন্ন মহলে সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে। খোদ ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের মধ্যে এ সফর নিয়ে সমালোচনা রয়েছে। দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী এবং একই মন্ত্রণালয়ের সচিবের একসঙ্গে বিদেশ সফরের বিষয়ে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের গতকাল সচিবালয়ে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেন, ঠিকই বলেছেন। এটা হওয়া উচিত নয়। এ ধরনের একটি অনুশাসন আছে। এই যে একটা দুর্যোগ… আরো বড় ধরনের ক্ষতি হয়ে যেতে পারতো। এ সময়ে মন্ত্রী মহোদয় গেলে, সচিবের থাকা উচিত। খুব জরুরি কোনো বিষয় ছাড়া দুজনের একসঙ্গে যাওয়া উচিত নয়। চুক্তি সংক্রান্ত বিষয় থাকলে মন্ত্রী-সচিব একসঙ্গে যেতে পারেন। সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, আমি সঠিকভাবে জানি না কোনো বাধ্যবাধকতা (ওই সম্মেলনে যাওয়ার বিষয়ে) আছে কিনা, দু’জনের যাওয়াটা জরুরি ছিল কিনা? তা না হলে মনে হয় একজনেরই যাওয়া উচিত। দুজন একসঙ্গে গেলে সমস্যা হতে পারে। এদিকে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিবের দায়িত্বপ্রাপ্ত সচিব (অতিরিক্ত সচিব) গোলাম মোস্তফা এ বিষয়ে সাংবাদিকদের বলেন, তারা তো সরকারি দায়িত্ব পালন করতেই গেছেন। এ রকম একটা ঘটনা ঘটবে তারা তো জানতেন না। আমরা যারা আছি আমরা তো তার কাজ করি। গতকাল আমাদের প্রতিটি লোক কাজে ব্যস্ত ছিল। -ডেস্ক