(দিনাজপুর২৪.কম) বিরল উপজেলার ধর্মপুর বন বিটের জায়গায় অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনার সময় অবৈধ দখলদারের হামলায় এক বাগান মালী গুরুত্বর আহত হয়েছে। আহত বাগান মালী তোফাজ্জল হোসেন দিনাজপুর মেডিক্যাল কলেজ (দিমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। ঘটনায় দু’জনকে আটক করে থানায় সোপর্দের পর একটি মামলা দায়ের হয়েছে।
মামলার বাদি ধর্মপুর বিট কর্মকর্তা গয়া প্রসাদ পাল বলেন, গত ২১ মার্চ বিকাল আনুমানিক ৩ টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তিনি সরকারী সংরক্ষিত বনাঞ্চল এলাকার ধর্মপুর মৌজার ২৩৩ ও ২১১২ নম্বর দাগে অবৈধভাবে বসতবাড়ী নির্মাণের সংবাদ পান। এ সংবাদ পেয়ে দিনাজপুর বন বিভাগের সদর রেঞ্জ কর্মকর্তা মোঃ শাহাবুদ্দীন এর নেতৃতে ধর্মপুর বন বিট কর্মকর্তা গয়া প্রসাদ পাল, কাহারোল বন বিটের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (এসএফএনটিসি) শরিফুল ইসলামসহ বন বিভাগের ৯ সদস্যের একটি বিশেষ টহল দল অবৈধ দখলদারদের উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় অবৈধ দখলকারীরা দলবদ্ধ হয়ে তাঁদের উপর হামলা চালায়। এতে বন বিভাগের তোফাজ্জল হোসেন নামের এক বাগান মালীর মাথায় আঘাত লাগলে সে ঘটনাস্থলেই জ্ঞান হারিয়ে ফেলে। এ সময় ধর্মপুর গ্রামের আকবর আলীর পুত্র মজিদুর রহমান (২৬) ও মৃত মোজাহার আলীর পুত্র শামীম (২৭) কে ঘটনাস্থল থেকে আটক করে থানায় সোপর্দ করা হয়। ঘটনায় ধর্মপুর বন বিটের কর্মকর্তা গয়া প্রসাদ পাল বাদি হয়ে ধৃত দু’জন সহ ১৭ জনের নাম উল্লোখ করে অজ্ঞাতনামা আরোও ২০/২৫ জনের বিরুদ্ধে ১৯২৭ সালের বন আইন (সংশোধিত/২০০০) এর ২৬ (১ক), ৬৩ (ক), তৎসহ ৩৫৩/৩৩২/৩৩৩ দণ্ডবিধিতে রাতেই একটি মামলা দায়ের করেন। থানার মামলা নং ১৬। এ ব্যাপারে বিরল থানার অফিসার ইনচার্জ তাপস চন্দ্র পন্ডিত জানান, তিনি নিজেই মামলাটি তদন্ত করছেন এবং এজাহার নামীয় অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। ধৃত দু’জনকে মঙ্গলবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। -ডেস্ক