(দিনাজপুর২৪.কম) আফগানিস্তানের নানগারহার শহরে গাড়িবোমা হামলায় অন্তত ২৬জন নিহত হয়েছেন বলে কর্মকর্তারা নিশ্চিত করেছেন।ঈদ উপলক্ষে তালেবান বিদ্রোহীদের ঘোষণা করা তিনদিনের যুদ্ধবিরতির মধ্যেই এ হামলা হল। আফগানিস্তানের সরকারি বাহিনীর সদস্য ও তালেবান সদস্যরা শনিবার নানগারহারে ঈদের শুভেচ্ছা বিনিময়য় করতে জড়ো হয়েছিলেন। সেখানেই হামলা হয় বলে জানিয়েছে রয়টার্স।যুদ্ধবিরতির মধ্যে দেশটির রাজধানীসহ বেশিরভাগ এলাকাতেই তালেবান ও সরকারি বাহিনীর সদস্যরা একে অপরের সঙ্গে ঈদের কোলাকুলি ও শুভেচ্ছা বিনিময় করে। অধিকাংশ এলাকায় তালেবান ও অাফগান সদস্যরা অস্ত্র ছাড়াই একে অপরের নিয়ন্ত্রণে থাকা এলাকায় প্রবেশ করলেও কিছু কিছু প্রদেশে তাদেরকে রকেট লঞ্চার, গ্রেনেড ও গোলাবারুদসহ ভারী অস্ত্রশস্ত্রও বহন করতে দেখা গেছে। শনিবার নানগারহারের গাজী অামিনুল্লাহ খান শহরের তোরখাম-জালালাবাদ সড়কে গাড়িবোমা হামলাটি হয় বলে প্রাদেশিক সরকারের মুখপাত্র অাত্তাউল্লাহ খোগিয়ানি জানান।
তালেবান সদস্যরা এ হামলার জন্য দায়ী নয় বলে দাবি তাদের মুখপাত্র জাবিউল্লাহ মুজাহিদের।

“আমাদের সঙ্গে এ হামলার কোনো যোগ নেই। যে এলাকায় হামলাটি হয়েছে, তা অামাদের যুদ্ধক্ষেত্রের কাছে। আমাদের কিছু সদস্য সেখানে ঈদ শুভেচ্ছা বিনিময় করতে গিয়েছিল। অামাদের সদস্যরাও হতাহত হয়েছে,” রয়টার্সকে বলেন মুজাহিদ।

তালেবানরা ছাড়াও আফগানিস্তানে মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস) ও তালেবান সংশ্লিষ্ট হাক্কানি নেটওয়ার্ক বেশ ক্রিয়াশীল।ঈদ উপলক্ষে তিনদিনের যুদ্ধবিরতির ঘোষণা দিয়ে সবাইকে বিস্মিত করে দিয়েছিল দীর্ঘদিন ধরে মার্কিন বাহিনী ও তাদের সমর্থিত সরকারি বাহিনীর সঙ্গে লড়াইরত তালেবানরা।

অাফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট অাশরাফ ঘানি এ যুদ্ধবিরতিকে স্বাগত জানিয়েছেন। সরকারি বাহিনী যুদ্ধবিরতির মেয়াদ বাড়াবে জানালেও কোনো সময়সীমা ঘোষণা করেননি তিনি।
তালেবানদেরও যুদ্ধবিরতির মেয়াদ বাড়াতে আহ্বান জানান ঘানি। -ডেস্ক