(দিনাজপুর২৪.কম)কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার ডুলাহাজারা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যানের খামারবাড়িতে তাঁর ছেলেসহ চার তরুণ এক পোশাকশ্রমিককে ধর্ষণ করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনা ঘটেছে গত রোববার বিকেলে। গতকাল সোমবার ঘটনাটি জানাজানি হয়। এ ঘটনায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে।

ডুলাহাজারা ইউপির চেয়ারম্যান নুরুল আমিন তাঁর ছেলের জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে বলেছেন, ‘আমার ছেলে এ রকম একটি জঘন্য কাজে জড়াবে, তা কল্পনাও করতে পারছি না। তাকে বিদেশ পাঠানোর সব ব্যবস্থা করে ফেলেছিলাম। এমন সময় সে ধর্ষণের মতো একটি ঘৃণ্য কাজে জড়িয়েছে।’ এ ঘটনায় চেয়ারম্যান তাঁর ছেলেসহ জড়িত সবার বিচার দাবি করেন।

আজ মঙ্গলবার বেলা দুইটার দিকে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন চকরিয়া সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) কাজী মোহাম্মদ মতিউল ইসলাম ও চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. হাবিবুর রহমান। এএসপি কাজী মতিউল  বলেন, গণধর্ষণের ঘটনায় ইতিমধ্যে বেলাল উদ্দিন নামের একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্যদের ধরতে পুলিশ কাজ করছে।

আজ বেলা সাড়ে তিনটার দিকে মুঠোফোনে ওসি মো. হাবিবুর রহমান বলেন, ধর্ষণের শিকার কিশোরী থানায় এসেছে। তার জবানবন্দি অনুযায়ী মামলা হবে। এরপর তাকে শারীরিক পরীক্ষার জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে।-ডেস্ক