(দিনাজপুর২৪.কম) কুষ্টিয়ার মিরপুরে ইউনানি জাতীয় ওষুধ খেয়ে শিশুসহ দুইজনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে। নিহতরা হলেন- বহলবাড়ীয়া খাড়াড়া এলাকার পলান শেখের ছেলে নুর মহাম্মদ (৫০) এবং একই এলাকার নবাব আলীর মেয়ে শামীমা (৯)। একই ওষুধ খেয়ে নবাব আলী আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। রোববার রাতে উপজেলার বহলবাড়ীয়া ইউনিয়নের খাড়াড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা জানান, নবাব আলীর বাড়িতে রোববার রাতে টেলিভিশন দেখতে যান নুর মুহাম্মদ। এ সময় কাশির জন্য নবাব আলী ইউনানি ওষুধ মেরী গোল্ড নামক সিরাপ সেবন করেন। এ সময় নুর মুহাম্মদ ও নবাব আলীর মেয়ে শামীমাও একই ওষুধ সেবন করেন। পরে রাত সাড়ে ১০টার দিকে শামীমা অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মিজানুর রহমান জানান, হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই মেয়েটি মারা গিয়েছিল।

এদিকে ওই একই ওষুধ খেয়ে মধ্যরাতে নুর ‍মুহাম্মদ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেয়ার সময় পথিমধ্যে মারা যান তিনি।

এছাড়া মধ্যরাতে শামীমার বাবা নবাব আলীও অসুস্থ হলে তাকে প্রথমে ভেড়ামারা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।

মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পুলিশ মরদেহ দুটি উদ্ধার করেছে। -ডেস্ক