(দিনাজপুর টোয়েন্টিফোর ডটকম) দিনাজপুর ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ওয়াহিদা খানমকে হত্যাচেষ্টা মামলার গ্রেপ্তার দুই আসামিকে সাত দিনের রিমান্ড শেষে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। আজ শুক্রবার বিকেলে তাদের কারাগারে পাঠানো হয়। দিনাজপুর কোর্ট পুলিশ পরিদর্শক মো. ইসরাইল হোসেন জানান, শুক্রবার বিকেল ৪টায় দিনাজপুরের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইসমাইল হোসেনের আদালতে এই মামলায় গ্রেপ্তার দুই আসামি নবীরুল ইসলাম (৩৫) ও সান্টু কুমার দাসকে (৩৩) সাত দিনের রিমান্ড শেষে ডিবি পুলিশ আদালতে সোপর্দ করেন।

বিচারক মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবি পুলিশ পরিদর্শক আবু ইমাম জাফরের আবেদন অনুযায়ী, ওই দুই আসামিকে নতুন কোনো রিমান্ডের আবেদন বা অন্য কোনো আবেদন না থাকায় তাদেরকে দিনাজপুর জেলা কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। শুক্রবার বিকেল ৫টায় আসামি নবীরুল ও সান্টু কুমার দাসকে পুলিশ পাহাড়ায় কারাগারে পাঠানো হয়।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ওই দুই আসামিকে গত শনিবার বিচারকের আদেশে তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবি পুলিশ পরিদর্শক সাত দিনের রিমান্ডে নিয়ে গিয়েছিলেন। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আজ বিকেল ৪টায় তাদের পুনরায় আদালতে তোলা হলে বিচারক কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। এই মামলায় গ্রেপ্তার অপর আসামি আসাদুল হককে (৩৫) গত ৬ সেপ্টেম্বর আদালত থেকে সাত দিনের রিমান্ড নিয়ে ডিবি পুলিশের হেফাজতে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। আগামীকাল শনিবার আসাদুলের রিমান্ড শেষ হলে তাকে ডিবি পুলিশ আদালতে তুলবে।

গত ২ সেপ্টেম্বর মধ্যরাতে ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ওয়াহিদা খানম তার সরকারি বাস ভবনে দুস্কৃতিকারীরা পিপিই পরে বাসায় প্রবেশ করে হাতুড়ি দিয়ে তার শরীরে ও মাথায় গুরুতর আঘাতে জখম করেন। এ সময় ওয়াহিদার বাবা তাকে রক্ষা করতে এসে তিনি নিজেও দুস্কৃতিদের হাতে গুরুতর আহত হন। ওয়াহিদা বর্তমানে ঢাকা নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তার বাবা ওমর আলী শেখ রংপুর মেডিলেক কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এই ঘটনাটি সরকারের ঊর্ধ্বতন মহলের নির্দেশে ডিবি পুলিশ ও সরকারের আইনশৃংখলা বাহিনীর সহায়তায় গুরুত্ব সহকারে অপরাধ উদঘাটনে তদন্ত কার্যক্রম চলছে।দিনাজপুর পুলিশ সুপার মো. আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘ঘটনাটি উদঘাটনের শেষ পর্যায় রয়েছে। অপরাধী শনাক্ত হলেই জনসম্মুখে অপরাধীর মুখোশ উন্মোচন করা হবে। এই মুহূর্তে তদন্ত স্বার্থে অন্যকিছু বলা সম্ভব নয়।’ -ডেস্ক