-সংগ্রহীত

(দিনাজপুর২৪.কম) সাভারের আশুলিয়ায় একা পেয়ে তিন শিশুকে পাশবিক নির্যাতন ও ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে এক বাড়িওয়ালার বিরুদ্ধে।

এ ঘটনার পর আশুলিয়ার উত্তর মোল্লাপাড়া এলাকা থেকে অভিযুক্ত হেলাল উদ্দিন শেখকে (৫৬) আটক করেছে পুলিশ।

হেলাল উদ্দিনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করে গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

এরই মধ্যে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করে তাঁকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। হেলাল ময়মনসিংহের গফরগাঁও থানাধীন ছয়ানী রসুলপুর গ্রামের বাসিন্দা।

পুলিশ বলছে, আশুলিয়ায় বেশ কয়েকজন পোশাক শ্রমিক হেলাল উদ্দিনের বাড়িতে ভাড়া থাকতেন। গত ৬ অক্টোবর সন্তানদের বাড়িতে রেখে তাদের মা-বাবারা কারখানায় যাওয়ায়। এই সুযোগে বাড়িওয়ালা হেলাল উদ্দিন ওই তিন শিশুকে ধর্ষণ করে। এর মধ্যে তিন শিশু অসুস্থ হয়ে পড়লে বিষয়টি প্রকাশ পায়।

পুলিশ জানায়, ঘটনার পর থেকেই ভুক্তভোগী শিশুদের পরিবারকে নানাভাবে প্রলোভন দেখানো হয়। ভয়-ভীতি দেখিয়ে স্থানীয়ভাবে ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা চলে।

এমন পরিস্থিতিতে বৃহস্পতিবার রাতে ভুক্তভোগী এক শিশুর পক্ষ থেকে জাতীয় জরুরি সেবার হটলাইন নম্বর ৯৯৯‌-এ ফোন করে প্রতিকার চাওয়ামাত্রই আশুলিয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায়।

এরপর ওই তিন শিশুকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে (ওসিসি) পাঠানো হয়। পরে আটক করা হয় বাড়িওয়ালা হেলাল উদ্দিনকে।

আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জিয়াউল ইসলাম গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। -ডেস্ক