এম.আহসান কবির, বার্তা সম্পাদক, (দিনাজপুর২৪.কম) দিনাজপুর জেলার বিরল থানা বিগত ৫ বছরের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির দায়ভার এখন পিবিআই থেকে আসা সদ্য যোগদানকৃত অফিসার্স ইনচার্জ গোলাম রসুল গ্রহণ করেছেন। তিনি সরাসরি দিনাজপুর জেলার সর্বস্তরের মাদক ব্যবসায়ী এবং মাদকসেবীদের উদ্দেশ্যে রংপুর বিভাগীয় সভায় সরাসরি উচ্চারণ করেছেন, “আমি থাকলে মাদক থাকবে না, নয়তো মাদক তো দূরের কথা দেশে আমার মত ওসির কোন প্রয়োজন নেই”। করতালির সাথে ঐ সভায় সানন্দে তার বক্তব্যকে গ্রহণ করে রংপুর রেঞ্জ ডিআইজি পৌঁছে দিয়েছেন আইজিপি মহোদয়কে। এমনটি জানা গেল, রংপুর রেঞ্জ ডিআইজি’র সভার বিবরণী থেকে পাওয়া গেছে। গোলাম রসুল একজন ত্যাগী ও একনিষ্ঠ কর্মী হিসেবে পিবিআই’র যোগদান করেছিলেন দিনাজপুর জেলায়। তার কর্মদক্ষতা উদাহরণই তাকে টেনে আনতে বাধ্য হয়েছেন দিনাজপুর পুলিশ সুপার। দায়িত্ব দিয়েছেন অসম্ভবকে সম্ভব করার। এমনই এক কথোপকথনে দিনাজপুর২৪.কম কে তিনি জানান, বিরল থানায় গত ৩০ মে আমি যোগদান করি ও অদ্যকার সময় অনুযায়ী আপনারা সাংবাদিকরা ভাইয়েরা আমার প্রতি মুহুর্তের কার্যক্রমের বিবরণ নেবেন এবং আমাকে পর্যবেক্ষন করবেন। আমি আপনাদের কাছে পর্যবেক্ষনধর্মী পুলিশ কর্মী হতে চাই, আমি অফিসার্স ইনচার্জ হিসেবে কোন মহা পুলিশ কর্মকর্তা হিসেবে নিজেকে জাহির করতে চাই না। আমি আপনাদের সাথে মিলেমিশে থাকতে চাই। আপনাদের সুখ দুঃখের অংশীদারিত্ব পেতে চাই। আপনাদের যেমন বাবা-মা ভাই বোন আছে আমারও কিন্তু বাবা মা ভাই বোন আছে। আমি বিরল থানা প্রতিটি ইউনিয়নের, প্রতিটি মানুষের কাছে বাবা-মা ভাইবোনের মত আমার দায়িত্বকালীন সময়ে আমি তাদের পরিবারের একজন হিসেবে অংশীদায়িত্ব চাই। এমনটি বললেন, বিরল থানার অফিসার্স ইনচার্জ গোলাম রসুল। বিরলবাসী দিনাজপুর জেলায় এমনই থানার অফিসার্স ইনচার্জ যেন প্রতিটি থানায় থাকে এমনই আশা প্রকাশ করেন। দায়িত্ব গ্রহণকালীন সময় থেকে তিনি মাদকদ্রব্য আইনে ১৬টি, বিশেষ ক্ষমতা আইনে ৪টি মামলা রেকর্ড করেছেন। ওয়ারেন্টভুক্তের তামিল সংখ্যা জিআর-২, সিআর-১। রিকলমুলে জিআর-৫, সিআর-২। চলতি মাসের নিয়মিত মামলা ২২জন আসামীকে গ্রেফতার করেছেন। বিগত মাসে ১ জন ধর্ষণের আসামীকে গ্রেফতার করেছেন। নাশকতামুলক কর্মকান্ডের প্রস্তুতিমুলক ঘটনায় ফৌ.কা.বি আইনের ১৫১ ধারায় ১জনকে গ্রেফতার করেছেন। উদ্ধার করেছেন ১৫৮ গ্রাম গাঁজা, ১.৭৫ গ্রাম হিরোইন, ২২০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট। ৩০ লিটার চোলাই মদ, ৪৫ বোতল ফেন্সিডিল। তিনি আরও আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি উন্নয়নের জন্য যা যা করণীয় তাই করতে চান এবং সাংবাদিক সহ স্থানীয় সাধারণ মানুষের সরাসরি পরামর্শ চান। তিনি এও জানান, কেউ আমার সাথে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে কথা বলতে আসলে যদি কোন বাধাগ্রস্ত হন তাহলে সরাসরি যেন আমাকে ফোন/ ম্যাসেজে জানিয়ে দেন।