(দিনাজপুর২৪.কম) কাতারের আল জাজিরা নেটওয়ার্কের স্পোর্টস চ্যানেলের বিরুদ্ধে পক্ষপাতদুষ্ট কাভারেজের অভিযোগ এনেছে সৌদি আরবের সরকার। রাশিয়ার বিরুদ্ধে বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে রাশিয়ার প্রতি পক্ষপাত দেখানোর এই অভিযোগে আল জাজিরার বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেওয়ারও ঘোষণা দিয়েছে দেশটি। এ খবর দিয়েছে হলিউড রিপোর্টার।
খবরে বলা হয়, বিশ্বকাপের উদ্বোধনী ম্যাচে রাশিয়ার কাছে ৫-০ গোলে হেরেছে সৌদি আরব। এই ম্যাচে আল জাজিরার অন্তর্ভূক্ত খেলার চ্যানেল বিআইএন একচোখা আচরন করেছে বলে অভিযোগ সরকারের।
এর আগে সৌদি ভক্তরা খেলা সম্প্রচারের সময় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিজেদের ক্ষোভের কথা জানান।

খেলার সময় বিআইএন’র ধারাভাষ্যকাররা শুধু রাশিয়ার গুণগান গাচ্ছিলেন বলে অভিযোগ তাদের। বিআইএন সহ আল জাজিরা নেটওয়ার্ক সৌদি আরবে নিষিদ্ধ। তবে মধ্যপ্রাচ্যে বিশ্বকাপের খেলা সম্প্রচারের স্বত্ব পেয়েছে বিআইএন। অনেক সৌদি ব্যবহারকারী তাই অনলাইনে এই চ্যানেলে খেলা দেখছিলেন।
সৌদি ভক্তদের সঙ্গে তাল মিলিয়ে দেশটির কর্তৃপক্ষও উষ্মা প্রকাশ করেছে। সৌদি জেনারেল স্পোর্টস অথরিটির চেয়ারম্যান তুর্কি আল শেখ টুইটারে লিখেছেন, ‘ক্রীড়ার অপ্যবহার করে রাজনৈতিক উদ্দেশ্য হাসিলের দায়ে বিআইএন ও এর কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনি পদক্ষেপ নেওয়া হবে।’ তিনি বলেন, ‘তাদের আচরণ থেকেই প্রমাণ হয় চ্যানেলটিকে সৌদি আরবে নিষিদ্ধের সিদ্ধান্ত সঠিক ছিল।’
প্রসঙ্গত, বিআইএন ও আল জাজিরা নেটওয়ার্কের মালিকানা মূলত কাতার সরকারের। কাতারের সঙ্গে প্রতিবেশী সৌদি ও আরব আমিরাতের তীব্র দ্বন্দ্ব চলছে। বছর খানেক আগে সৌদি আরব, আমিরাত, বাহরাইন ও মিশর একযোগে কাতারের সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদ করে। আবার ২০২২ সালের বিশ্বকাপ আয়োজন করবে কাতার। -ডেস্ক