(দিনাজপুর২৪.কম) অভিনেতা সিদ্দিক ও মারিয়া মিমের সংসারে শোনা যাচ্ছে ভাঙনের সুর। প্রায় তিন মাস ধরে আদালা থাকছেন তারা। অথচ পরিবারের সম্মতি নিয়ে ভালোবেসেই ঘর বেঁধেছিলেন দুজন।

তিনমাস ধরে আলাদা থাকছেন অভিনেতা সিদ্দিক ও মারিয়া মিম। এ দম্পতির পরিবারে ছয় বছরের পুত্র সন্তান থাকলেও ভাঙ্গনের মুখে তাদের সংসার। কেন বিচ্ছেদ হচ্ছে তাদের?অথচ প্রেমের টানে স্পেনের বিলাসী জীবন ছেড়ে অভিনেতা সিদ্দিকুর রহমানের কাছে ছুটে এসেছিলেন মারিয়া। পরিবারের সম্মতি নিয়ে ভালোবেসেই ঘর বেঁধেছিলেন দু’জন। সেই ভালোবাসার ঘর আজ ভাঙনের মুখে!

বিচ্ছেদের আগে একে অপরের বিরুদ্ধে আনছেন নানা অভিযোগ। এর আগে সিদ্দিক জানান, কেবল মিডিয়ায় কাজ করতে না দেওয়াতে আলাদা থাকছেন মিম। মিমকে তিনি তার সংসারে ফিরে আসার আহ্বানও জানান।

এদিকে সিদ্দিকের বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ তার স্ত্রী মারিয়া মিমের। তিনি বলছেন, ‘শুধু মিডিয়ায় কাজ করতে না দেওয়াই কারণ নয়; সিদ্দিকের সঙ্গে সংসার না করার শত শত কারণ রয়েছে। এমন অনেক বিষয় রয়েছে যা বললে গ্রেফতার হবেন সিদ্দিক।’

তবে এর আগে সিদ্দিক জানান, কেবল মিডিয়ায় কাজ করতে না দেয়াতে আলাদা থাকছেন মিম। মিমকে তিনি তার সংসারে ফিরে আসার আহ্বানও জানান।

মারিয়া মিমের আরও অভিযোগ, বিয়ের পর থেকে তাদের মধ্যে মনের অমিল শুরু হয়। বিয়ের আগে সিদ্দিক তার কোনো কিছু নিয়ে আপত্তি করত না। তবে এখন করে।

মারিয়া আরও বলেন, আমার সব কাজে সিদ্দিকের অভিযোগ। আমি সব ছেড়ে দিতাম।

যদি আমার স্বামী আমাকে মানসিকভাবে শান্তি দিত ও ভালোবাসত। সিদ্দিক ঠিক হয়ে যাবে, সুন্দর একটি পরিবার হবে- এই আশায় সাত বছর পার করলাম। সব সহ্য করে গেছি এতদিন, আর নয়।

সিদ্দিক আমার সঙ্গে প্রতারণা করেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, বিয়ের পর থেকে সিদ্দিক আমার সঙ্গে নানাভাবে প্রতারণা করেছে। ছেলের মুখের দিকে তাকিয়ে সব সহ্য করে গেছি। সব কিছু তো আর বলা সম্ভব নয়, যদি বলতাম তা হলে এতদিনে ওকে জেলে থাকতে হতো।

২০১২ সালের ২৪ মে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত স্পেনের নাগরিক মারিয়া মিমকে বিয়ে করেন সিদ্দিক। ২০১৩ সালের ২৫ জুন তারা পুত্রসন্তানের বাবা-মা হন। -ডেস্ক