(দিনাজপুর২৪.কম) ব্যাংক হিসাবের আমানতের ওপর আবগারি শুল্ক না বাড়িয়ে বর্তমান হারে রাখার দাবি জানিয়েছেন সরকারদলীয় হুইপ শহীদুজ্জামান সরকার।
আজ সোমবার জাতীয় সংসদে ২০১৬-১৭ অর্থবছরের সম্পূরক বাজেটের ওপর আলোচনায় তিনি বলেন, আমাদের দেশে খুব তাড়াতাড়ি প্যানিক ছড়ায়। এবার ছড়িয়েছে আমানতের ওপর আবগারি শুল্ক নিয়ে। প্যানিক সৃষ্টি হয়েছে আমানতের টাকা কেটে নেয়া হবে। অর্থমন্ত্রীর কাছে আমার অনুরোধ শুল্ক যেন আগেরটাই রাখা হোক।
২০১৭-১৮ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে, ব্যাংক হিসাবে এক থেকে ১০ লাখ টাকা থাকলে তার আবগারি শুল্ক ৫০০ থেকে বাড়িয়ে ৮০০ টাকা করার প্রস্তাব করা হয়েছে। আর ১০ লাখ থেকে ১ কোটি টাকা পর্যন্ত দেড় হাজার টাকার বদলে আড়াই হাজার টাকা, ১ কোটি থেকে ৫ কোটি টাকা পর্যন্ত সাড়ে ৭ হাজার টাকার বদলে ১২ হাজার টাকা এবং ৫ কোটি টাকার বেশি থাকলে ১৫ হাজার টাকার বদলে ২৫ হাজার টাকা করার প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী।
তিনি আরও বলেন, সঞ্চয়পত্রের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয় ১৯ হাজার কোটি টাকা, অর্জন হয়েছে ৪২ হাজার কোটি টাকা। সঞ্চয়পত্রে ওপর যাতে কাঁচি না চলে। একে আরও সহজ করার যদি প্রক্রিয়া থাকে সেটা অনুসরণ করার অনুরোধ জানাচ্ছি অর্থমন্ত্রীকে। আমরা ঘাটতি পূরণ করতে পারিনি। কারণ আমাদের বাজেটের ভলিউম বাড়ছে। দুর্নীতির ফাঁকফোকর বন্ধ করতে পারলে ঘাটতি পূরণ করতে পারব।
তিনি বলেন, ভ্যাটের আওতা কমিয়ে আয়কর ও অন্য প্রত্যক্ষ কর বাড়াতে পারলে আমরা মানুষকে আরও স্বস্তি দিতে পারতাম। কর আদায়ের এই প্রক্রিয়াগুলো অর্থমন্ত্রী গ্রহণ করবেন বলে আশা করছি। -ডেস্ক