(দিনাজপুর২৪.কম) একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য আনুষ্ঠানিক প্রচার শুরু করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ মঙ্গলবার সিলেট আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় তিনি এ প্রচার শুরু করেন।  প্রধানমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পরই দেশের উন্নয়ন হয়। কিন্তু পঁচাত্তরের পর দেশে হত্যা-ক্যুর রাজনীতি শুরু হয়। বহু মুক্তিযোদ্ধাকে হত্যা করা হয়েছিল। যারা ক্ষমতায় এসেছিল, তারা কেবল নিজেদের ভাগ্যের উন্নয়ন করেছে। ৫ জানুয়ারির নির্বাচন ঘিরে বিএনপির আন্দোলনের প্রসঙ্গ টেনে তিনি বলেন, বিএনপি জ্বালাও-পোড়াও করে। আর আমরা উন্নয়ন করি। আজ সিলেটে এসেছি। আমরা নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেছি।
বিএনপি আমলে নেতাকর্মীদের অত্যাচার-নির্যাতন করা হয়েছে অভিযোগ করে শেখ হাসিনা বলেন, ২০০১ সালে ক্ষমতায় আসার পর অপরারেশন ক্লিন হার্টের নামে আমাদের বহু নেতাকর্মীকে হত্যা করা হয়। অনেককে কারাগারে নিয়ে নির্যাতন করে। বহু নেতাকর্মীকে গুম করে।
এর আগে সিলেট সার্কিট হাউস থেকে মঙ্গলবার বিকেল ৩টায় প্রধানমন্ত্রী আলিয়া মাদ্রাসা মাঠের জনসভায় উপস্থিত হন। এ সময় নেতাকর্মীরা স্লোগানে স্লোগানে প্রিয় নেত্রীকে শুভেচ্ছা জানান। তিনিও হাত নেড়ে শুভেচ্ছার জবাব দেন।
অবশ্য জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ আয়োজিত এই জনসভা দুপুর সোয়া ১টায় পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াতের মধ্যদিয়ে শুরু হয়।
জনসভায় সভাপতিত্ব করছেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি লুৎফুর রহমান। এরপর জেলা ও মহানগর এবং কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নেতারা বক্তব্য দেন।
জনসভা উপলক্ষে সকাল থেকে মিছিল নিয়ে নেতাকর্মীরা জনসভাস্থলে আসেন। দুপুরে আগেই কাণায় কাণায় পূর্ণ হয়ে যায় আলিয়া মাদ্রাসা মাঠ। মাদ্রাসা মাঠ ছাপিয়ে জনস্রোত মিশেছে আশপাশে সড়কে। হাতে ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে তারা স্লোগানের পর স্লোগানে গোটা এলাকা মুখরিত করে তুলেছেন।