স্টাফ রিপোর্টার (দিনাজপুর২৪.কম)  দিনাজপুরে করোনাভাইরাসের কারণে কর্মহীন, অসহায় ও দুস্থ কয়েক হাজার পবিরার ত্রানের দাবিতে দিনাজপুর-বিরল সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে ।

আজ বুধবার সকাল ১০টা থেকে দিনজিপুর সদরের বালুয়াডাঙ্গা এলাকার কাঞ্চন ব্রিজ সড়ক অবরোধ করে ত্রানের দাবি জানায়। বিক্ষোভে কয়েক হাজার নারী পুরুষ অংশ নেয়।

এসময় বিক্ষোভে অভিযোগ করে বলেন, ১০নং ওয়ার্ড পৌর কাউন্সিলর সিদরাতুল ইসলাম কালা বাবু ও ২নং ওয়ার্ড পৌর কাউন্সিলর মুক্তিবাবু এলাকায় কোন ত্রান দেয়নি বলে অভিযোগ করেন। বিক্ষোভকারীরা জানান, সরকার থেকে ত্রান দেওয়া হলেও আমরা এ পর্যন্ত কোন প্রকার ত্রান সামগ্রী পাইনি।

১০ নং ওয়ার্ডেও নুর-নেহার বেওয়া জানান, সবকার ত্রাণ দিলেও আমরা ত্রান পাচ্ছিনা। একই ওয়ার্ডেও চম্পা বেগম জানান, প্রধানমন্ত্রী বলেছে, আপনারা ঘরে থাকেন, আমরা ত্রান পৌছে দিবো। কিন্তু তার দলের লোকজন ত্রান না দিয়ে আত্বসাত করছে। ত্রানের নামে গরীব অসহায়দের নিয়ে ছিনিমিনি খেলছে। ২নং ওয়ার্ডের ত্রান বঞ্চিত ফেন্সি আখতার জানান, আমার বাড়িতে ৫ সদস্য, লকডাউনের কারনে কোন কাজ নেই, ফলে বসে বসে ক্ষেতে হচ্ছে। করোনার চেয়ে আমাদের কাছে খাদ্যটাই বড় হয়ে দেখা দিয়েছে। একই ওয়ার্ডের চা দোকানদার বাবু জানান, লকডাউনের কারনে দোকান বন্ধ, সংসার চালাতে পারছি না। পরিবারের সদস্যদের মুখে খাওয়ার দিতে পারছিনা। সরকারী ভাবে ত্রান দিলেও কেউ দুইবার-তিনবার পাচ্ছে, আবার কেউ এশবার ও পাচ্ছে না। সরকারি দলের নেতাদের সাথে যাদের সম্পর্ক রয়েছে, তারাই শুধু ত্রান পাচ্ছে।

সকাল ১০টা থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ চলে পরে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা) সানিউল ফেরদৌউস ও দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম বিক্ষোভ কারীদেরকে ত্রান দেওয়ার আশ্বাস দিলে তারা অবরোধ প্রত্যাহার করে নেয়।

গত পরশু দিনাজপুর ১০ মাইল ঢাকা-রংপুর মহা সড়কের টেক্সটাইল বাজারে ও সপ্তাহ খানেক আগে চাদগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের সামনে এবং ১০ দিন পূর্বে বীরগঞ্জ উপজেলায় দিনমজুর, গরীব, অসহায়, শ্রমিক সহ ত্রান না পাওয়া শত-শত মানুষ বিক্ষোভ প্রদর্শন ও  রাস্তা অবরোধ করে।