1. dinajpur24@gmail.com : admin :
  2. dinajpur24@gmail.com : akashpcs :
  3. self@unliwalk.biz : brandymcguinness :
  4. ChristineTrent91@basic.intained.com : christinetrent4 :
  5. azegovvasudev@mail.ru : latricebohr8 :
  6. news@dinajpur24.com : nalam :
  7. vaughnfrodsham2412@456.dns-cloud.net : reneseward95 :
  8. Sonya.Hite@g.dietingadvise.club : sonya48q5311114 :
সোমবার, ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ০৫:৫৪ পূর্বাহ্ন
নোটিশ :
নতুন রুপে আসছে দিনাজপুর২৪.কম! ২০১০ সাল থেকে উত্তরবঙ্গের পুরনো নিউজ পোর্টালটির জন্য দেশব্যাপী সাংবাদিক, বিজ্ঞাপনদাতা প্রয়োজন। সারাদেশে সংবাদকর্মী নিয়োগ দেয়া হবে। আগ্রহীরা এখনই প্রয়োজনীয় জীবন বৃত্তান্ত সহ সিভি dinajpur24@gmail.com এ ইমেইলে পাঠান।

আপিল চলাকালেও দণ্ডিতদের নির্বাচনের পথ বন্ধ : হাইকোর্ট

  • আপডেট সময় : মঙ্গলবার, ২৭ নভেম্বর, ২০১৮
  • ১ বার পঠিত

-ফাইল ছবি

(দিনাজপুর২৪.কম) দেশের নিম্ন আদালতে দুই বছরের বেশি সাজা হলে আপিল বিচারাধীন থাকা অবস্থায় কোনো ব্যক্তি নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না বলে রায় দিয়েছেন হাইকোর্ট। আদালতের এই আদেশের ফলে দুই দুর্নীতি মামলায় ১৭ বছরের কারাদণ্ডে দণ্ডিত বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নির্বাচনে অংশ নেওয়ার পথও আটকে গেছে। দুর্নীতির দায়ে বিচারকি আদালতের দেওয়া দণ্ড ও সাজা (কনভিকশন অ্যান্ড সেন্টেন্স) স্থগিত চেয়ে আমান উল্লাহ আমানসহ বিএনপির পাঁচ নেতার করা আবেদন খারিজের রায়ে মঙ্গলবার (২৭নভেম্বর) এই সিদ্ধান্ত আসে। বিচারপতি মো. নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের হাই কোর্ট বেঞ্চ মঙ্গলবার এ আদেশ দেন। রায় ঘোষণাকালে আদালত তার পর্যবেক্ষণে বলেন, যদি এই সাজা স্থগিতও করা হয় তাতে কোনও লাভ হবে না। কেননা, সাজাপ্রাপ্ত ব্যক্তির নির্বাচনে অংশ নেওয়ার বিষয়ে সংবিধানে বাধা রয়েছে। যেহেতু সংবিধানে বাধা আছে সেহেতু অন্য কোনও আইনে সাজা স্থগিত হলেও কোনও লাভ হবে না। আপিল চলাকালে (পেন্ডিং) সাজাপ্রাপ্ত ব্যক্তি নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন না। আপিল পেন্ডিং থাকলেও সাজা স্থগিত হয় না এবং নির্বাচন করতে পারবেন না।

বিএনপি নেতা আমান উলাহ আমান, ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, ওয়াদুদ ভূঁইয়া, মো. মশিউর রহমান ও মো. আব্দুল ওহাবের পক্ষে দণ্ড ও সাজা বাতিলের ওই আবেদন করা হয়েছিল।

আদালতে সাবেক প্রতিমন্ত্রী আমানউল্লাহ আমানের পক্ষে ছিলেন-আইনজীবী জাহিদুল ইসলাম। ডা.এ জেড এম জাহিদ হোসেনের পক্ষে ছিলেন-ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ, আহসানুল করীম ও খায়রুল আলম চৌধুরী। ওয়াদুদ ভুঁইয়া ও আব্দুল ওহাবের পক্ষে ছিলেন-ব্যারিস্টার রফিক-উল-হক, ও ব্যারিস্টার একেএম ফখরুল ইসলাম। মশিউর রহমানের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার আমিনুল হক ও ব্যারিস্টার মাহবুব শফিক। অন্যদিকে দুদকের পক্ষে ছিলেন-আইনজীবী মো. খুরশীদ আলম খান। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন-অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক।

পরে ব্যারিস্টার খায়রুল আলম চৌধুরী গণমাধ্যমকে বলেন, আসামিদের পক্ষে ফৌজদারি কার্যবিধির ৪২৬ ধারায় দণ্ড স্থগিত চেয়ে আবেদন করেছিলাম। কিন্তু আদালত বলেছেন, যে ধারায় (ফৌজদারি কার্যবিধির ৪২৬ ধারা) আবেদনগুলো করা হয়েছে সে ধারায় সাজা স্থগিতের কোনও বিধান নেই।

খায়রুল আলম চৌধুরী আরও বলেন, সাজা স্থগিত করে নির্বাচনে অংশ নেওয়ার বেশ কিছু নজির আমরা আদালতকে দেখিয়েছি। কিন্তু সেই নজিরগুলো যুক্তিযুক্তভাবে আদালত গ্রহণ করেননি বলে আমরা মনে করছি। তাই এই আদেশের বিরুদ্ধে আমরা আপিলে যাবো।

তথ্য গোপন ও দুর্নীতির মাধ্যমে ৬ কোটি ৩৬ লাখ ২৯ হাজার ৩৫৪ টাকার সম্পদ অর্জন করায় ওয়াদুদ ভুঁইয়াকে মোট ২০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানার রায় দেন চট্টগ্রামের বিভাগীয় স্পেশাল জজ আদালত। তিনি এ বিষয়ে আপিল করেন ২০০৯ সালের ২৮ এপ্রিল। পরে ওই বছরেই তিনি জামিন পান।

এছাড়া জ্ঞাত আয়বহির্ভূত ৯৩ লাখ ৩৬৯ টাকার সম্পদ অর্জন ও তথ্য গোপন করায় মো. আবদুল ওহাবকে যশোর স্পেশাল জজ গত বছরের ৩০ অক্টোবর ৮ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ত্রিশ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দিয়েছেন। পরে তিনি এ বিষয়ে আপিল করে ৬ ডিসেম্বর জামিন নেন।

জ্ঞাত আয়বহির্ভূত প্রায় ১০ কোটি ৫ লাখ ৬৯ হাজার তিনশ’ টাকার সম্পদ অবৈধভাবে অর্জনের অভিযোগে ২০০৮ সালের ১৪ ডিসেম্বর দুর্নীতি দমন কমিশনের সমন্বিত জেলা কার্যালয় কুষ্টিয়ার তৎকালীন সহকারী পরিচালক মোশরাফ হোসেন মৃধা মামলা করেন।

এ মামলায় ২০১৭ সালের ২৫ অক্টোবর ঝিনাইদহ-২ (সদর ও হরিণাকুন্ডু) আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মশিউর রহমানকে পৃথক ধারায় ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেন আদালত।

একইসঙ্গে ৭০ হাজার টাকা জরিমানা ও ১০ কোটি ৫ লাখ ৬৯ হাজার ৩৩০ টাকার সম্পদ বাজেয়াপ্তের নির্দেশ দেন আদালত। পরবর্তীতে তিনি আপিল করে হাইকোর্ট থেকে জামিন নেন।

এছাড়া আমানউল্লাহ আমানকে দুর্নীতির মামলায় ২০০৭ সালের ২১ জুন বিচারিক আদালত ১৩ বছরের সাজা দেন। পরে তিনি আপিল করে হাইকোর্ট থেকে জামিন নেন। -ডেস্ক

নিউজট শেয়ার করুন..

এই ক্যাটাগরির আরো খবর