সুকুমার দাস বাবু, আটোয়ারী (দিনাজপুর২৪.কম) পঞ্চগড়ের আটোয়ারীতে দীর্ঘ সাত বছর পর উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষনা করা হয়েছে। সূত্র জানায়, গত ১৫ মার্চ জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আক্তারুজ্জামান আক্তার ও সাধারণ সম্পাদক মারুফ রায়হান মো. আইয়ুব আলী কে সভাপতি এবং হোসেন মোহাম্মদ সিফাত কে সাধারণ সম্পাদক করে একটি পুর্ণাঙ্গ কমিটি আনুমোদন দেন। এ খবর উপজেলায় ছড়িয়ে পড়লে তড়িঘরি করে ২০১০ সালে গঠিত ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক (সাবেক) সেলিম মোর্শেদ মানিক জরুরী সভা ডেকে ১৬ মার্চ বিকেলে আব্দুর রাজ্জাক রাজু কে সভাপতি ও ওমর ফারুক কে সাধারণ সম্পাদক করে উপজেলা ছাত্রলীগের একটি পাল্টা পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষনা করেন। ছাত্রলীগের কমিটি গঠন নিয়ে উপজেলা ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ দুটি প্রতিপক্ষ দলে বিভক্ত হয়ে পড়েছে। এতে মুরুব্বী সংগঠনের নেতৃবৃন্দও পক্ষ বিপক্ষ অবস্থান নেয়ায় ১৬ মার্চ বিকালে একটি পক্ষের আনন্দ মিছিল ও অপর পক্ষ জেলা কমিটির অনুমোদিত কমিটিকে অস্বীকার করে সন্ধায় একটি মিছিল বের করে উপজেলার প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে।
এ ব্যাপারে উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি (সাবেক) কামরুজ্জামান কামু জানান, উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটির বয়স প্রায় ৭ বছর। নতুন কমিটির জন্য নেতাকর্মীরা দীর্ঘদিন থেকে দাবী জানিয়ে আসছিল। কিন্তু আভ্যন্তরীণ সমস্যার কারণে নতুন কমিটি গঠন করা সম্ভব হয়নি। সেক্ষেত্রে জেলা কমিটি পুরাতন কমিটি ভেঙ্গে দিয়ে নতুন কমিটি ঘোষনা করায় আমি জেলা কমিটিকে ধন্যবাদ জানাই।
এদিকে উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক (সাবেক) সেলিম মোর্শেদ মানিক জানায়, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আকশ্মিকভাবে আটোয়ারী উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি গঠন ও অনুমোদন দেওয়ার কারণ আমার বোধগম্য নয়। এই কমিটিকে উপজেলা ছাত্রলীগ মানতে পারেনা। তাই নিয়ম অনুযায়ী আমি জরুরী সভা ডেকে ১৬ মার্চ বিকেলে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়ায় উপজেলা ছাত্রলীগের কমিটি গঠন করেছি।
উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মো. তৌহিদুল ইসলাম জানান, জেলা কমিটি উপজেলা ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের না জানিয়ে রাতের অন্ধকারে অর্থের বিনিমিয়ে পকেট কমিটি অনুমোদন করে পাঠিয়ে দিলেই স্থানীয় আওয়ামীলীগ ও ছাত্রলীগ মেনে নিতে পারে না। তাই উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জরুরী সভা ডেকে যে নতুন কমিটি ঘোষণা করেছে আমরা তা সমর্থন করি। অপরদিকে উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. আনিছুর রহমান বলেন, দীর্ঘদিন ছাত্রলীগের কাউন্সিল না হওয়ায় জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আটোয়ারী উপজেলা কমিটি ভেঙ্গে দিয়ে নতুন কমিটি ঘোষনা দিয়েছে। আমরা নতুন কমিটিকে সমর্থন করি।