নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না

(দিনাজপুর২৪.কম) নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক মাহমুদুর রহমান মান্না বলেছেন, ‘এখন ফেসবুকে সবাই লিখছে, স্ত্রীকে নিয়ে বেড়াতে যাবেন, বান্ধবীকে নিয়ে বেড়াতে যাবেন, আগে খোঁজ নিন যেখানে যাবেন সেখানে ছাত্রলীগ আছে কিনা!’ মান্না বলেন, ‘এখন দেশের কোথাও আমাদের মা-বোনেরা নিরাপদ নয়। সাধারণ মানুষ নিরাপদ নয়। পথে যারা চলে তারা নিরাপদ নয় আর আমাদের জীবন তো এমনিতেই নিরাপদ নয়।’

গতকাল বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে নারী ধর্ষণ ও হত্যার প্রতিবাদে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্ম আয়োজিত মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

মান্না বলেন, একদিকে করোনা, নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধি, আবার আছে পুলিশের নির্যাতন। তিনি বলেন, ‘একটা বিষয় এখন বাংলাদেশকে প্রায় গ্রাস করে ফেলেছে। আমাদের দেশের কোনো ইজ্জত নেই, মা-বোনের ইজ্জত কী থাকবে! যে সম্মানের জন্য এত রক্ত ক্ষয় করে স্বাধীনতা অর্জন করা হল, সে সম্মান আজ মাটিতে মিশে যাচ্ছে। আওয়ামী লীগ নেতারা বলেন তাদের দলে এখন নাকি সব হাইব্রিড, আসল আওয়ামী লীগ কে বা কারা তা নাকি আর খুঁজে পাওয়া যায় না। হাইব্রিড চোর-ডাকাতদের নিয়ে দল চালালে এমন অবস্থা তো হবেই।’

নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক বলেন, ‘উনারা তো বললেই হলো না ওরা ছাত্রলীগ করে না। ওরা ছাত্রলীগ করে বলেই পুলিশ ওদের ভয় পায়, কিছু বলে না। ছাত্রলীগ-আওয়ামী লীগ করলেই যা ইচ্ছা তাই করে বেড়াতে পারে। তাদের নামে কোনো মামলা হয় না।’ সারাদেশেই ধর্ষণ চলছে মন্তব্য করে মান্না বলেন, ‘সম্প্রতি নারায়ণগঞ্জে হলো, পার্বত্য চট্টগ্রামে হলো, কুমিল্লায় তনুকে ধর্ষণ করে ক্যান্টনমেন্টে খুন করা হলো। এ সবের বিচার হয়েছে? হয়নি। ওরা ধর্ষকদের প্রশ্রয় দেয়। রাতে যারা ভোট ডাকাতি করে, তাদের বিরিয়ানি খাওয়ায়। আর আমরা প্রতিবাদ করলেই মামলা হয়।’ -ডেস্ক