(দিনাজপুর২৪.কম) চীনের উহান থেকে মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়ার ৯ মাসের মধ্যে বিশ্বে নতুন করোনাভাইরাসে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২ কোটি ৮৬ লাখ ছাড়িয়েছে। এ অদৃশ্য ভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে ৯ লাখের ১৯ হাজারও বেশি।

আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডওমিটারস এ তথ্য জানিয়েছে।

সংস্থাটির তথ্যানুযায়ী, ১২ সেপ্টেম্বর দুপুর পর্যন্ত বিশ্বে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯ লাখ ১৯ হাজার ৭৯৭ জনে।

ওয়ার্ল্ডওমিটারস থেকে আরো জানা যায়, এই পর্যন্ত বিশ্বজুড়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দুই কোটি ৮৬ লাখ ৬৩ হাজার ৩০৪ জন। এর মধ্যে ৯ লাখ ১৯ হাজার ৭৯৭ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। মোট সুস্থ হয়েছেন ২ কোটি ৫৮ লাখ ৭ হাজার ৭৭০ জন।

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস মহামারীতে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোর মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রই শীর্ষে রয়েছে। দেশটিতে মৃত্যুর সংখ্যা এক লাখ ৯৭ হাজার ছাড়িয়ে গেছে আর মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬৬ লাখ ৩৬ হাজার ২৬৬ জনে।

মৃত্যুর সংখ্যায় বিশ্বে দ্বিতীয় স্থানে আছে ব্রাজিল। প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে এখানে মৃত্যু হয়েছে এক লাখ ৩০ হাজার ৪৭৪ জনের। দেশটিতে শনাক্ত হওয়া মোট কোভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা ৪২ লাখ ৮৩ হাজার ৯৭৮  জন।

মৃত্যুর সংখ্যায় ব্রাজিলের পর তৃতীয় স্থানে আছে ভারত। এ দেশটিতে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৭৭ হাজার ৫০৬ জন। ৪৬ লাখ ৫৯ হাজার ৯৮৪ জন শনাক্ত রোগী নিয়ে আক্রান্তের তালিকায় ভারত দ্বিতীয় স্থানে আছে।
বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, দুই আমেরিকা মহাদেশের পর মহামারীর কেন্দ্রটি এখন বিশ্বের দ্বিতীয় জনবহুল দেশ ভারতে অবস্থান করছে। প্রথমে কঠোর লকডাউন জারি করায় করোনাভাইরাসের বিস্তার ধীর গতিতে ছড়ালেও ধাপে ধাপে লকডাউন তুলে নেয়ার প্রক্রিয়া শুরু হওয়ার পর থেকে ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে।

লকডাউন তুলে নেয়ার ধারাবাহিকতায় গেলো বুধবার দেশটিতে বারগুলোও ফের খুলে দেয়া হয়েছে। এতে আক্রান্তের সংখ্যা আরও বাড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

বাংলাদেশে এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত মোট আক্রান্ত হয়েছে ৩ লাখ ৩৪ হাজার ৭৬২ এবং মোট মারা গেছেন ৪ হাজার ৬৬৮ জন।

কোভিড-১৯ জনিত প্রথম মৃত্যুর ঘটনাটি রেকর্ড হয়েছিল ১০ জুন চীনের উহানে। ডিসেম্বরের শেষ দিকে এই শহরটিতেই প্রথম করোনাভাইরাস সংক্রমণ দেখা দিয়েছিল। -ডেস্ক