আকতার হোসেন বকুল (দিনাজপুর২৪.কম) জয়পুরহাটের পাঁচবিবির নওদা হিন্দুপাড়া গ্রামের মৃত পিজুষ সরকারের ছেলে প্রান্ত সরকারের খুনিদের ফাঁসির দাবীতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। বৃহস্পতিবার বিকালে জয়পুরহাট-হিলি পাকা রাস্তার নওদা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পার্শ্বে ঘন্টাব্যাপী এ মানববন্ধনে এলাকার ছোট-বড় সবাই অংশ গ্রহন করেন। মানববন্ধন থেকে একাধিক ব্যাক্তি আইন প্রয়োগকারি সংস্থার নিকট খুনিদের অবিলম্বে ধরে শাস্তির ব্যবস্থা করতে অনুরোধ জানায়।

গত বুধবার সন্ধ্যায় নওদা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় এলাকায় চায়ের দোকানে বসেছিলো প্রান্ত। এসময় উপজেলার নাকরগাছী এলাকার প্রান্তরী পাঁচ বন্ধু রিপন, রিমন, হাসান, আকাশ ও তানজিল দেশীয় অস্ত্র নিয়ে তাকে মারার জন্য এগিয়ে এলে প্রাণ বাঁচাতে প্রান্ত দৌড়ে পালিয়ে ছোট যমুনা নদীর ধারে শ¤œান ঘাটে ঝোপের মধ্যে লুকিয়ে থাকে। খুনিরা প্রান্তকে খুজে বের করে চাপাতি দিয়ে এলোপাতারি কোপাতে থাকে এক পর্যায়ে আত্বচিৎকারে প্রাণ রক্ষার্থে দৌড়ে পাশের গ্রামে আশ্রয় নেয় এবং এলাকাবাসি এগিয়ে এলে খুনিরা পালিয়ে যায়। গ্রামবাসি ও পরিবারের লোকেরা আহত প্রান্তকে উদ্ধার করে প্রথমে জয়পুরহাট আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করেন। প্রান্তর অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য বগুড়া শহীদ জিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। দীর্ঘ ৮ দিন মৃর্ত্যুর সঙ্গে যুদ্ধ করে অবশেষে গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় না ফেরার দেশে চলে যায় এক সন্তানের যুবক প্রান্ত সরকার। বৃহস্পতিবার বিকালে লাশ বাড়িতে পৌঁছিলে এলাকায় কান্নার বোল পড়ে যায়। এলাকাবাসী জানায় প্রান্তর নিকট থেকে পাঁচশ টাকা পাওনা কে কেন্দ্র করে পাঁচ বন্ধু মিলে তরতাজা এক যুবকের প্রাণ কেরে নিলো।