ছবি: সংগৃহীত

(দিনাজপুর২৪.কম) সভ্য এবং সচেতন জাতি হিসেবে পৃথিবীর বুকে অস্ট্রেলিয়ানরা বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছে। রাষ্ট্রীয় সকল বিষয়ের মতো নিজেদের স্বাস্থ্য সচেতনতার বিষয়টিও বেশ গুরুত্ব দিয়ে দেখে তারা। এবার দারুণ এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করল দেশটির অপটাস স্টেডিয়াম কর্তৃপক্ষ। স্টেডিয়ামে দর্শকদের জন্য বিক্রি করা খাবারে এক টুকরো অর্ধসিদ্ধ মুরগির মাংস পেয়ে সব খাবার ফিরিয়ে নিয়েছে তারা।

এমনিতে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার পার্থ টেস্ট খুব একটা উত্তেজনা ছড়াচ্ছে না। স্বাগতিক দলের দাপটে অসহায় হয়ে পড়েছে সফরকারী নিউজিল্যান্ড। চতুর্থ দিনেই জয় মোটামুটি নিশ্চিত করে ফেলেছে অস্ট্রেলিয়া। প্রথম ইনিংসের ২৫০ রানের লিডের সঙ্গে ২১৭ রান যোগ করতে পেরেছে দলটি।

৪৬৮ রানের লক্ষ্যে নামা নিউজিল্যান্ড ড্রিংক্স বিরতি পর্যন্ত ১৫২ রান তুলতেই হারিয়েছে ৫ উইকেট। এখনো তাদের ৩১৬ রান প্রয়োজন, শেষ পাঁচ উইকেট হাতে নিয়ে যা করতে পারার সম্ভাবনা অনেক কম। তবে ম্যাড়ম্যাড়ে ম্যাচে এর আগেই ঘটেছে অন্যরকম ঘটনা।

তখন সবেমাত্র ব্যাট করতে নেমেছে নিউজিল্যান্ড। স্কোরবোর্ডে তাদের সংগ্রহ ৫ রান। এমন সময় মাঠের জায়ান্ট স্ক্রিনে হঠাৎ একটি লেখা ফুটে ওঠে। স্কোরবোর্ডে দর্শকদের উদ্দেশ্যে লেখা হয়, ‘আপনি যদি আজ স্টেডিয়ামে কোনো স্যান্ডউইচ, রেপস (শর্মা সদৃশ রোল) বা সালাদ কিনে থাকেন তবে দয়া করে সেটা এখনই ওই আউটলেটেই ফেরত দিয়ে আসুন।’

সঙ্গে সঙ্গে হুড়োহুড়ি পড়ে যায় গ্যালারিতে। পরে অবশ্য আরেকটি সতর্ক বার্তা পাঠানো হয়। সেখানে বলা হয়, শুধু মুরগির মাংস ছিল এমন খাবারই ফেরত নেওয়া হবে।

স্টেডিয়ামের এক মুখপাত্র বলেছেন, ‘আমাদের এক কর্মী একটি রেপে রান্না না হওয়া এক টুকরো মুরগির মাংস দেখেছেন। এরপর আমরা সব রেপ সরিয়ে নিয়েছি সঙ্গে সঙ্গে। সব খাবারই গুনে গুনে ফেরত নেওয়া হয়েছে। খাবার খেয়ে অসুস্থ হওয়ার খবর আমরা এখনও পাইনি। তবে সতর্কতা হিসেবে আগেভাগেই সব খাবার সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।’

তিনি আরও জানিয়েছেন, ওই ঘটনার আগে ২০টি মুরগির রেপ বিক্রি হয়েছিল। বিষয়টি নিয়ে শুরুতে উত্তেজনা ছড়ালেও পরে অবশ্য মজা করছেন সবাই। যেমন ক্রিকেট সাংবাদিক পিটার লালোর টুইট করেছেন, ‘বলতে না বলতে অপটাস স্টেডিয়ামে টয়লেটের সামনে লাইন লেগে গেছে!’ -ডেস্ক