(দিনাজপুর২৪.কম) বাংলাদেশী অবৈধ অভিবাসী ও রোহিঙ্গারা যদি ভারত ছেড়ে না যায় তাহলে তাদেরকে গুলি করা উচিত এবং নির্মূল করে দেয়া উচিত। আসামে নাগরিকত্ব নির্ধারণ বিষয়ক এনআরসির চূড়ান্ত খসড়া প্রকাশের পর ভারতের বিভিন্ন স্থানে উত্তেজনা বিরাজ করছে। আসামে কমপক্ষে ৪০ লাখ মানুষকে নাগরিকত্বের বাইরে রাখা হয়েছে। এর বেশির ভাগই বাংলাভাষী মুসলিম। এ নিয়ে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। নতুন এক উন্মাদনা দেখা দিয়েছে।

পশ্চিমবঙ্গ থেকেও ‘বাংলাদেশী অবৈধ’ অভিবাসীদের বিতাড়নের ইঙ্গিত দিয়েছেন বিজেপির এক নেতা। এ ইস্যুতে যখন বিভিন্ন স্থানে উত্তেজনা বিরাজ করছে তখন বাংলাদেশী ও রোহিঙ্গাদের নিয়ে ওই বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন তেলাঙ্গনা রাজ্যের বিজেপি দলীয় এমএলএ রাজা সিং। সোমবার আসামের এনআরসি তালিকা প্রকাশের পর তিনি বলেছেন, যদি এসব রোহিঙ্গা ও বাংলাদেশী অবৈধ অভিবাসীরা সম্মানের সঙ্গে ভারত ছেড়ে না যায় তাহলে তাদেরকে গুলি করা উচিত। তাদেরকে নির্মূল করে দেয়া উচিত। শুধু তাহলেই ভারত হবে নিরাপদ। এ খবর দিয়েছে অনলাইন আউটলুক ইন্ডিয়া। এতে বলা হয়, সোমবার ওই তালিকা প্রকাশিত হওয়ার পর ৪০ লাখেরও বেশি মানুষের ভাগ্য বিপর্যয়ে পড়েছে। এনআরসির তালিকা থেকে তাদেরকে পুরোপুরি বাদ দেয়া হবে কিনা এ বিষয়ে সোমবার মন্তব্য করতে রাজি হয় নি কেন্দ্রীয় সরকার। এদিন সরকার লোকসভাকে অবহিত করে যে, ভারতে বসবাসকারী কিছু রোহিঙ্গা বেআইনি কর্মকান্ডের সঙ্গে যুক্ত। রোহিঙ্গাদের শরণার্থী মর্যাদা নেই। তারা অবৈধ অভিবাসী।-ডেস্ক