মো. নুরুন্নবী বাবু (দিনাজপুর২৪.কম)  অবিরাম বর্ষনে দিনাজপুরের ৩টি নদীর পানি বিপদ সীমা ছুই ছুই করছে। আবহাওয়া অধিদপ্তর গত ৩৩ ঘন্টায় বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে ৮৮ মিলি মিটার। জেলার অধিকাংশ নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে।  গত ৩ দিন ধরে দিনাজপুরে অবিরাম বর্ষনে জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। স্বাভাবিক জীবন যাত্রা ব্যাহত হয়েছে। জেলার অধিকাংশ নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হওয়ায় মানুষের দুর্ভোগ বেড়েছে। কর্মহীন হয়ে পড়েছে দিনমজুর ও স্বল্প আয়ের মানুষ। আজ শনিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত দিনাজপুর-গোবিন্দগঞ্জ মহাসড়কে ৩টি মাল বোঝাই ট্রাক ও ২টি মাইক্রো বাস বৃষ্টির কারণে উল্টে খাদে পড়ে গেছে। তবে কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।  দিনাজপুর পানি উন্নয়ন বোর্ডের সহকারী প্রকৌশলী আব্বাস আলী জানান, আজ শনিবার দুপুর ১২টা পর্যন্ত জেলার ৩টি প্রধান নদীর পানি বিপদ সীমা ছুই ছুই করছিল। পূনর্ভবা নদীর পানি বিপদ সীমার ১ মিটার নিচ দিয়ে প্রবাহিত হচ্ছে। বিপদ সীমা ৩৩ দশমিক ৫০ মিটার আর পানি প্রবাহিত হচ্ছে ৩২ দশমিক ৬০ মিটার। আত্রাই নদীর বিপদ সীমা ৩৯ দশমিক ৯৫ মিটার আর প্রবাহিত হচ্ছে ৩৭ দশমিক ৬০ মিটার। ইছামতি নদীর বিপদ সীমা ২৯ দশমিক ৯৫ মিটার আর পানি প্রবাহিত হচ্ছে ২৮ দশমিক ৯৫ মিটার।
গতকাল শুক্রবার সকাল ৬টা থেকে আজ শনিবার দুপুর ৩টা পর্যন্ত দিনাজপুরে বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে ৮৮ মিলি মিটার। দিনাজপুর আবহাওয়া অফিসের সহকারী কর্মকর্তা আশিকুর রহমান জানান, আগামী ২ দিন পর্যন্ত হালকা ও ভারী বর্ষণের সম্ভাবনা রয়েছে।