(দিনাজপুর২৪.কম) করোনাভাইরাসের আক্রমণে জর্জরিত সারাবিশ্ব। বাংলাদেশও এই তালিকায় আছে। এই ভাইরাসের কারণে ক্রীড়াঙ্গনও থমকে গেছে। আন্তর্জাতিক-ঘরোয়া সব ধরনের খেলাধুলা স্থগিত। তাই বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা বাসায় বন্দি রয়েছেন। তবে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে করোনাভাইরাস মোকাবেলায় সর্তক বার্তা, উপদেশ, অনুরোধ ও সাহস যুগিয়ে যাচ্ছেন বাংলাদেশের তারকা ক্রিকেটাররা।

নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেইজে ভিডিও বার্তায় নতুন ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল বলেন, ‘করোনাভাইরাস সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ছে এবং বাংলাদেশে তার সংখ্যাও বাড়ছে। আতঙ্কিত হওয়ার কিছুই নেই, তবে সবাইকে সাবধান আর সতর্ক থাকতে হবে। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে দুটি ব্যাপার খেয়াল রাখতে হবে। প্রথম, সবাইকে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকতে হবে। নিয়ম মেনে বারবার হাত ধুতে হবে। চোখ-মুখ-নাকে হাত দেওয়া যাবে না। আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হলো সামাজিক দূরত্ব মেনে চলা।’

খুব বেশি দরকার না হলে বাসা থেকে বের না হবার অনুরোধও জানান তামিম, ‘করোনাভাইরাসের বিপক্ষে জিততে হলে আমাদের সবাইকে একসাথে দায়িত্ব পালন করতে হবে। খুব বেশি দরকার না হলে বাসার বাইরে না যাওয়া, ভিড় থেকে দূরে থাকা আর বিভিন্ন অনুষ্ঠান এড়িয়ে চলা। আমাদের নিজের জন্য, পরিবারের জন্য, দেশের জন্য আমাদের কিছু আত্মত্যাগ করতে হবে। পরিবারে যাঁরা বয়স্ক আছেন, তাঁদের দিকে খেয়াল রাখতে হবে।’

প্রবাসীদের প্রতিও অনুরোধ জানিয়েছেন তামিম। তিনি বলেন, ‘প্রবাসী যারা দেশে ফিরেছেন, তাদের অনুরোধ করব তারা যেন ১৪ দিন সব নিয়ম মেনে কোয়ারেন্টিনে থাকেন। কেউ মিথ্যা বা গুজব ছড়াবেন না, আর গুজবে কানও দেবেন না।’

তামিম ও তার পরিবার সকল নিয়ম মানছেন। করোনাভাইরাসের বিপক্ষে লড়াইয়ে জেতার ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন তিনি, ‘আমি আর আমার পরিবার সব নিয়ম মেনে চলছি। সবাই দায়িত্ব মেনে চললে আমরা এ লড়াইয়ে জিতব।’ -ডেস্ক